বাগেরহাটে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে  প্রতিপক্ষের  ইটের আঘাতে গৃহবধু নিহত

প্রকাশিত
বাগেরহাট প্রতিনিধিঃ
বাগেরহাটের ফকিরহাটে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের ইটের আঘাতে তাসলিমা বেগম  (৪২) নামে এক নারীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।
নিহত রাজিয়া ব্রাক্ষণরাকদিয়া গ্রামের
নাসির উদ্দিনের স্ত্রী বলে জানা গেছে। ৩০ এপ্রিল (শুক্রবার) সকাল ১১টার দিকে মডেল থানা পুলিশ, ময়না তদন্তের
জন্য ওই নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করেছে।
ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযাগে নিহতের জা রাজিয়া বেগম (৪৫) কে আটক করেছে ফকিরহাট মডেল থানা পুলিশ। অপর অভিযুক্ত নিয়ামুল ইসলাম বাবু শেখ পালিয়ে গেছে।
নিহতের পরিবার জানায়, গত ২৮ এপ্রিল সন্ধ্যায় ফকিরহাট সদর ইউনিয়নের কাঁঠালতলার
ব্রাক্ষণরাকদিয়া গ্রামের নাসির উদ্দিনের পুত্র মো: হামিমের সাথে তার চাচাতো ভাই
মহিবুল্লাহ শেখের পুত্র বাবু শেখ এর সাথে শরবত খাওয়াকে কেন্দ্র করে উভয় পরিবারের সাথে
বাকবিতন্ডার সৃষ্টি হয়।
এক পর্যায়ে তাসলিমা বেগম কে তার জা রাজিয়া বেগম ও রাজিয়ার ছেলে বাবু শেখ ইট দিয়ে মাথায় আঘাত করে। গুরুতর আহত তাসলিমাকে ঐদিন রাতে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৯ এপ্রিল রাত
সাড়ে ৯টার দিকে মারা যান।
নিহতের পুত্র মো: জামাল ও হামিম শেখ জানান, তার মাকে মাথায় ইটের আঘাত করে হত্যা করা
হয়েছে। তারা এই হত্যার সঠিক বিচার দাবী করেন।
এ ব্যাপারে মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু সাঈদ মো: খায়রুল আনাম জানান,
নিহতের মাথায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। এক নারীকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায়
মামলার প্রস্তুতি চলছে। ময়না তদন্ত প্রতিবেদন ও সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে মৃত্যুর কারন উদঘাটন করা
সম্ভব হবে বলে তিনি জানান।