বারহাট্টায় ইউএনওর হস্তক্ষেপে বন্ধ হলো বাল্যবিয়ে

প্রকাশিত

বারহাট্টা (নেত্রকোনা) সংবাদদাতাঃ নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলায় সাহতা ইউনিয়নের পূর্বচর গ্রামে ইউএনওর হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেল অঞ্জনা আক্তার নামে এক নাবালিকা মেয়ে। বুধবার সন্ধ্যায় অঞ্জনার অমতের বাইরে গোপনে বিয়ের আয়োজন করে তার বাবা কুদ্দুছ মিয়া। বিষয়টি জানতে পেরে অঞ্জনার বাড়ীতে গিয়ে উপস্থিত হন ইউএনও ফরিদা ইয়াসমিন। এ সময় ইউএনও কে দেখতে পেয়ে পালিয়ে যায় বর পক্ষের লোকজনসহ বিয়ের আয়োজকরা। পরে ইউএনওর কাছে অঞ্জনার পরিবারের লোকজন বাল্য বিয়ে না দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। এদিকে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পাওয়া অঞ্জনা আক্তার জানায় এখন বিয়ে করার তার কোন ইচ্ছা নেই। এ ব্যাপারে ইউএনও ফরিদা ইয়াসমিন জানান অঞ্জনার বিয়ে হওয়ার আগ পর্যন্ত তার লেখাপড়ার যাবতীয় খরচ আমি চালিয়ে যাব।