বাসা ভাড়া দিতে না পারায় বিদ্যুৎ-পানি বন্ধ করলেন বাড়িওয়ালা, পুলিশের হস্তক্ষেপে চালু

প্রকাশিত
কিবরিয়া চৌধুরী, হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের চিড়াকান্দি এলাকায় বাসা ভাড়া ও বিদ্যুৎ বিল দিতে না পারায় এক অসহায় ভাড়াটিয়ার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছেন বাড়িওয়ালা। বন্ধ করে দিয়েছেন পানি সরবরাহ ব্যবস্থা। এমতাবস্তায় শিশু সন্তানকে নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছিলেন বিধবা মহিলা। শেষ পর্যন্ত জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপে আজ বিকেলে বিদ্যুৎ সংযোগ চালু হয় ঐ মহিলার বাসায়। কাল সকালে পানি সংযোগও স্বাভাবিক করে দিবেন বলে নিশ্চয়তা প্রদান করেছেন ভাড়াটিয়া।
শহরের চিড়াকান্দি বাগানবাড়ি এলাকার রঞ্জিত রায়ের বাড়ীতে বাসা ভাড়া করে থাকতেন বিধবা চন্দনা রাণী পাল। বিভিন্ন বাসায় কাজ করে শিশু সন্তানকে নিয়ে কোনভাবে দিনাতিপাত করতেন তিনি। কিন্তু করোনার এই দুর্যোগ মুহূর্তে কর্মহীন হয়ে পড়েন চন্দনা পাল। যে কারণে নিয়মিত বাসাভাড়া ও বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে পারেননি তিনি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে ভাড়া ও বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করবেন বলে বাড়িওয়ালা মিনতি করে জানান চন্দনা। কিন্তু এতে রাজি হননি অর্থলোভী বাড়িওয়ালা রঞ্জিত। নিরীহ মহিলাকে বাসা ছাড়তে বারবার হুমকি দিতে থাকেন তিনি। সম্প্রতি ত্রাণ সহায়তা দিতে চন্দনা পালের বাসায় যান সামাজিক সংগঠন ‘হিউমিনিটি স্কোয়ার্ড’ এর সদস্যরা। সেখানে এই বিধবা মহিলার করুন অবস্থার কথা জানতে পারেন স্কোয়াডের সদস্য। এ সংগঠনের সদস্য এসডিআর পিনাক বিষয়টি স্থানীয় একজন টেলিভিশন সাংবাদিককে জানান। পরে ঐ সাংবাদিক জেলা প্রশাসক কামরুল হাসানকে বিষয়টি অবহিত করেন। জেলা প্রশাসক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য বিষয়টি পুলিশ সুপারকে অবহিত করেন। পরে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্লার নির্দেশে সদর থানার এসআই পার্থ রঞ্জন চক্রবর্তীর নেতৃত্বে আজ সন্ধ্যায় পুলিশ ঐ বাসায় অভিযান চালায়। এসময় বাড়ির মালিক পুলিশের সামনেই বিদ্যুৎ সংযোগ চালু করে দেন। আগামীকাল পানি সংগ্রহের ব্যবস্থাও চালু করে দেয়ার বিষয়ে পুলিশকে নিশ্চয়তা প্রদান করেন। এছাড়াও করেনাকালীন সময়ে ঐ মহিলাকে ভাড়া প্রদানের জন্য চাপ দিবেননা বলে নিশ্চয়তা প্রদান করেন বাড়ির মালিক।