বিএনপির আন্দোলনে সাড়া দেবে না জনগণ: কাদের

প্রকাশিত

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছন, বিরোধী দলের আন্দোলনের আহ্বান জানানো ছাড়া আর কিছু করার নেই। কারণ জনগণ তাদের আহ্বানে সাড়া দেবে না।

তিনি বলেন, বিগত ১০ বছরে সাধারণ জনগণ সাড়া দেয়নি, দেবেও না। কারণ জনগণ শান্তিতে থাকতে চায়, চায় উন্নয়ন।

বুধবার (২৩ জানুয়ারি) রাজধানীর বনানীতে নব নির্মিত বিআরটিএ ভবনে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) সিনিয়র কর্মকর্তাদের সঙ্গে মত বিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, জনগণ তাদের ডাকা সাড়া দেবে এটা একটা দুঃস্বপ্ন। কারণ জনগণ শান্তিতে থাকতে চায়। দেশের উন্নয়ন হয়েছে, আরও উন্নয়ন হবে। তাই জনগণ সরকারের কাছে উন্নয়ন চায়। বিএনপির ডাকে আন্দোলনে সাড়া দেয়ার মতো মুডে জনগণ এখন নেই। আর তরুণ প্রজন্মই আওয়ামী লীগের অন্যতম প্রধান শক্তি।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) এবং কিশোরগঞ্জ-১ আসনের নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আগামী ২৬ জানুয়ারি আওয়ামী লীগের বোর্ড সভায় মনোনয়নের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। যাচাই বাছাইয়ের মাধ্যমে জনগণের কাছে যারা যোগ্য মনে হয় তাদেরই মনোনয়ন দেয়া হবে। আমরা চাই একটি প্রতিদ্বন্দ্বীতামূলক নির্বাচন হোক, তাই নিবন্ধিত সব দলের প্রতি আহ্বান জানাবো আপনারা এই নির্বাচনে অংশ নিন।

পদ্মা সেতু প্রসঙ্গ তুলে ওবায়দুল কাদের বলেন এই সেতুতে সপ্তম স্প্যান বসানো হয়েছে।খুব শিগগিরই আরও দুই তিনটা বসানো হবে। সপ্তম স্প্যান বসানোর মাধ্যেমে দেশের সবচেয়ে বড় মেগা প্রকল্প পদ্মা সেতুর আরও কিছুটা অগ্রগতি হলো।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহণ কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।