বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কলেজ শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ থানায় মামলা

প্রকাশিত

স্টাফ রিপোর্টারঃ: গাজীপুরের টঙ্গীতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে নূসরাত লামিয়া (ছদ্দনাম) (২১) নামে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে নূসরাত লামিয়া (ছদ্দনাম) (২১) বাদি হয়ে প্রেমিক মো.আল-আমিন (২৪) এর বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার রাতে টঙ্গী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ ঘটনার পর থেকে ধর্ষক প্রেমিক পলাতক রয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ধর্ষক মো.আল-আমিন গাজীপুরের কুনিয়া পাজর এলাকার ইকবাল হোসেনের ছেলে। সে টঙ্গী সরকারি কলেজের ডিগ্রী শেষ বর্ষের ছাত্র ও নূসরাত লামিয়া (ছদ্দনাম) একই কলেজে অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের বিজ্ঞান বিভাগে ছাত্রী হওয়ায় মেয়েটির সঙ্গে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে উঠে। পরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারিরক সম্পর্ক গড়ে তুলে। এক পর্যায়ে ওই যুবতি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে।

গত ৬ মার্চ টঙ্গীর একটি বেসরকারি ক্লিনিকে স্বাস্থ্য পরীক্ষা নিরীক্ষা করলে চিকিৎসকের দেওয়া রিপোর্টে জানা যায় সে ৪ সপ্তাহের অন্ত:সত্ত্বা।

এ ব্যাপারে টঙ্গী মডেল থানার (ওসি) মো.কামাল হোসেন ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযুক্ত মো.আল-আমিন পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।