বুড়িমারী সীমান্তে বাংলাদেশীকে পিটিয়ে হত্যা করলো বিএসএফ

প্রকাশিত

 ডেস্ক রিপোর্ট :এবার লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী সীমান্তে মনজুরুল আলম(২১) নামের এক বাংলাদেশী গরু ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ। গুলি,পাথর ও ককটেল নিক্ষেপের পর এবার বিএসএফ এই কৌশল অবলম্বন করায় সীমান্ত জুড়ে আতংক বিরাজ করছে। পিটিয়ে হত্যার পর লাশ বিএসএফ সদস্যরা সীমান্তের জিরো পয়েন্টে ফেলে রাখে বলে জানিয়েছেন বুড়িমারী ইউপি চেয়ারম্যান নিশাত হোসেন। নিহত মনজুরুল ইসলাম পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী ইউনিয়নের উফারমারা গ্রামের আসাদুল ইসলামের পুত্র বলে জানা গেছে। রবিবার ভোর ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে বিজিবি সুত্র নিশ্চিত করেছে।

বিজিবি ও এলাকাবাসীবাসী সুত্র জানান, জেলার পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী সীমান্তের মেইন পিলার ৮৩৬-এর ৬এফ নম্বর সাব পিলার সংলগ্ন সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশী একদল গরু পারাপারকারী রাখাল রবিবার রাতে গরু আনতে গেলে ভারতীয় কুচবিহার জেলার ৬১- বিএসএফ খড়খড়ি ক্যাম্পের টহল দলের সদস্যরা তাদের কে ধাওয়া করে মনজুরুলকে আটক করে। পরে তাকে পিটিয়ে হত্যার পর লাশ ওই সীমান্তের জিরো পয়েন্টে ফেলে রাখে। সকালে বুড়িমারী বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা মনজুরুলের লাশ উদ্ধার করে পাটগ্রাম থানায় ময়নাতদন্তের জন্য হস্তান্তর করে। পাটগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

রংপুর-৬১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক মেজর সৈয়দ মনীরুজ্জামান এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় বিএসএফকে কড়া প্রতিবাদ জানানো হয়েছে এবং নিহতের লাশ উদ্ধার করে থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। প্রতিবাদপত্র দেওয়া হলেও বিএসএফ’র পক্ষ থেকে কোন সাড়া দেওয়া হয়নি বলে জানান এই বিজিবি কর্মকর্তা।