বেঈমান ও মোনাফিকদেরকে চিহ্নিত করতে হবে-জিসিসি’র ৫৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন

প্রকাশিত
মৃণাল চৌধুরী সৈকত : গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে টঙ্গীর ৫৭ নং ওয়ার্ডের নব-নির্বাচিত কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন সরকার বলেছেন, গত ২৬ জুন, ২০১৮ গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আমি ৫৭ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে টিফিন ক্যারিয়ার প্রতীকে নির্বাচন করে বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করেছি। সর্বস্তরের জনগন আমাকে তাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে দ্বিতীয় বারের মতো জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করেছেন। আমি জীবনবাজী রেখে এলাকাবাসির সার্বিক উন্নয়নের জন্য সততা, নিষ্টার সাথে সারাজীবন কাজ করে যাবো।

নবনির্বাচিত কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন সরকার হুশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন, বেঈমান ও মোনাফিক লোকজনদেরকে সবার আগে চিহ্নিত করতে হবে। যারা দুই নৌকায় পা দিয়েছেন তারাই কেবলমাত্র সুযোগ সন্ধ্যানী তাছাড়া সুবিধাবাদীরাই সবার আগে আমাকে শুভেচছা জানানোর জন্য ছুঁটে এসেছেন। তাদের কাছ থেকে আমাদের সকলকে এখন থেকে সতর্ক থাকতে হবে।
শনিবার বিকেলে ৫৭ নম্বর ওয়ার্ডস্থ টঙ্গী বাজার আনারকলি রোডে টঙ্গী পুরাতন লৌহ ব্যবসায়ী মালিক সমিতির উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা ও এক সংবর্ধনা অনুষ্টানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ৫৭ নম্বর ওয়াডের নবনির্বাচির্ত কাউন্সিলর আলহাজ মো: গিয়াস উদ্দিন সরকার এসব কথা বলেন।
আলোচনা ও এক সংবর্ধনা অনুষ্টানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন গাজীপুর সিটি করপোরেশন (জিসিসি) ৫৭ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মো: শাহ আলম, টঙ্গী পুরাতন লৌহ ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো: আবুবক্কর সিদ্দিক, টঙ্গী বাজার প্রেস ব্যবসায়ী সমিতির প্রভাবশালী নেতা এবিএম আসলাম মোল্লা, টঙ্গী পুরাতন লৌহ ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সহ-সম্পাদক আনিছুর রহমান, প্রভাবশালী যুবলীগনেতা ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো: মিলন আহমেদ, ৫৭ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ মোহাম্মদ সাজিদ, টঙ্গী পুরাতন লৌহ ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি হাজী আবুল হোসেন হাওলাদার, সহ-সাধারণ সম্পাদক মো: বসির ভুঁইয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: জাকির হোসেন, সহ-কোষাধ্যক্ষ মো: দিদারুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক মো: মনির হোসেন, দপ্তর সম্পাদক খাইরুল ইসলাম, প্যানেল চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হোসেন, সহ-প্রচার সম্পাদক নুরুল ইসলাম, সংস্কুতি বিষয়ক সম্পাদক মো: জালাল সরকার, কার্যকরী সদস্য মোস্তফা কামাল ও মফিক উদ্দিন প্রমুখ।

এছাড়া টঙ্গী পুরাতন লৌহ ব্যবসায়ী মালিক সমিতির অন্যান্য কর্তকর্তা, টঙ্গীর ৫৭ নং ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ সহযোগী অঙ্গ-সংগঠনের নেতাকর্মী, ব্যবসায়ী মহল ও এলাকাবাসিরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ৫৭ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন সরকার বলেন, এখন থেকে আমার নির্বাচনী এলাকার সর্বস্তরের মানুষকে আগের চেয়ে বেশি বেশি সেবা প্রদানের ব্যবস্থা করবো। অন্যায় ও অনৈতিক কাজ আমাকে স্পর্শ করতে পারবে না। এজন্য আমি সকলের সার্বিক সহযোগিতা ও দোয়া চাই।
তিনি আরো বলেন, নির্বাচনকে পুঁজি করে কে কি কাজ করেছেন তা অমি সব কিছু জানি। আল্লাহর তরফ থেকে নির্বাচনের ফয়সালা হয়েছে। আমাকে ভোট দিয়ে আপনারা কাউন্সিলর নির্বাচিত করেছেন। এখন থেকে নগরবাসিকে সকল ধরনের নাগরিক সুবিধা দিবো।
কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন সরকার বলেন, নির্বাচনের আগে অনেকে অনেকের সাথে অসৌজন্যমূলক ও খারাপ আচরণ করেছেন। আল্লাহ আমাদেরকে বিবেক ও বুদ্ধি দিয়েছে। বিবেকহীন মানুষ গুলো নির্বাচনে ঘৃণ্য কাজ করেছে। তাদের দিনের বেলায় ছিল এক ধরনের আচরণ আর রাতে ছিল অন্যরকম আচরণ। সে সব লোকদেরকে এখন থেকে চিনে রাখতে হবে। তারা সমাজের মোনাফিক, বেঈমান ও চির শক্রু।
আলোচনা সভা শেষে টঙ্গী পুরাতন লৌহ ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো: আবুবক্কর সিদ্দিক এর পক্ষ থেকে নব নির্বাচিত কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন সরকারকে ফুলেল শুভেচছা জানানো হয়। পরে উপস্থিত সকলের মধ্যে মিষ্টি বিতরণ করা হয়।
গত ২৬ জুন, ২০১৮ গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে টঙ্গীর ৫৭ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে টিফিন ক্যারিয়ার প্রতীকে নির্বাচন করে ৪ হাজার ৮শ ৪৪ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন মো: গিয়াস উদ্দিন সরকার। নির্বাচনে আওয়ামীলীগ যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মো: আজাহার উদ্দিন ৩ হাজার ৮শ ১০ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় হয়েছেন। কাউন্সিলর পদে মো: আজাহার উদ্দিনের চেয়ে ১ হাজার ৩৫ ভোট বেশি পেয়ে নতুন কাউন্সিলর হিসেবে জয়ী হয়েছেন মো: গিয়াস উদ্দিন সরকার।