ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও যশোরে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ৩

প্রকাশিত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুইজন নিহত হয়েছেন। অন্যদিকে যশোরে আজও এক ‌’সন্ত্রাসীর’ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।পুলিশের ভাষ্য, দু’দল সন্ত্রাসীর বন্দুকযুদ্ধে এক সন্ত্রাসীর মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার গভীর রাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার শাহাবাজপুর উপজেলার দেওড়া সড়কে এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে।

পুলিশের দাবি, নিহতরা ডাকাত দলের সদস্য। তাদের নামে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর ও লাখাই থানায় ডাকাতিসহ একাধিক মামলা রয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মফিজ উদ্দিন ভূঁইয়া মিডিয়াকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে নিহতদের বিস্তারিত পরিচয় জানা যায়নি।

এদিকে, যশোরে গতকাল শনিবার চার ব্যক্তির গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধারের রেশ না কাটতেই আজ আরও এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, নিহত ব্যক্তি একজন সন্ত্রাসী। দু’দল সন্ত্রাসীদের বন্দুকযুদ্ধে তার মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র-গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

রোববার ভোরে যশোর সদর উপজেলার রঘুরামপুর গ্রামে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহতের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই খবির উদ্দিন জানান, রোববার ভোরে পুলিশ খবর পায় যশোর সদর উপজেলার রঘুরামপুর গ্রামে দু’দল সন্ত্রাসী বন্দুকযুদ্ধে লিপ্ত হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে এক সন্ত্রাসীর লাশ উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরো জানান, ময়নাতদন্তের জন্য পুলিশ নিহত সন্ত্রাসীর মরদেহ যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। ঘটনাস্থল থেকে ১টি দেশি তৈরি ওয়ানশুটার গান, ১ রাউন্ড গুলি, ৫টি গুলির খোসা, ৫টি ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

এর আগে শনিবার ভোরে যশোর সদর ও ঝিকরগাছা উপজেলা থেকে চার ডাকাতের গুলিবিদ্ধ মরদেহ উদ্ধার করেছিল পুলিশ