মানবিক কারণে বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের আশ্রয়, পাশে থাকবে তুরস্ক’

প্রকাশিত

তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম বলেছেন, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গারা জাতিগত হত্যার শিকার হয়েছে। তারা বাংলাদেশে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয়েছে।

কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, মানবিক দিক বিবেচনা করে বাংলাদেশ তাদের আশ্রয় দিয়েছে। এ জন্য তিনি বাংলাদেশের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, তুরস্ক রোহিঙ্গাদের পাশে থাকবে। রোহিঙ্গা শরণার্থীদের দ্রুত তাদের স্বদেশে ফিরিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানান বিনালি ইলদিরিম। রোহিঙ্গাদের নিরাপদে বসবাসের জন্য আন্তর্জাতিক মহলের এক যোগে কাজ করা জরুরি বলেও মনে করেন তিনি।

তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বুধবার সকাল ১১ টার দিকে বিমানে করে কক্সবাজার পৌঁছান। ওখান থেকে তিনি সারাসরি যান উখিয়ার বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে। সেখানে পৌঁছে তিনি মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধনের পাশাপাশি ২টি অ্যাম্বুলেন্স হস্তান্তর করে। এসময় নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের সাথে আলাপ করেন তিনি। এরপর কুতুপালং ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের মধ্যে খাবার বিতরণ করেন।

এসময় তার সাথে ছিলেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীসহ বিভিন্ন কর্মকর্তারা।

তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি এলদেরিম দুই দিনের সরকারি সফরে সোমবার রাতে ঢাকায় এসে পৌঁছান। কক্সবাজার থেকেই তিনি বাংলাদেশ থেকে বিদায় নেবেন।

Be the first to write a comment.

Leave a Reply