মা-বোন-স্ত্রী ! নরেন্দ্র মোদিসহ রবীন্দ্রনাথকেও শান্তি দিচ্ছেন না যে গায়ক !

প্রকাশিত

তুহিন সারোয়ার-

ভারতীয় চ্যানেল জি বাংলা তাঁকে পরিচিতি দিয়েছে। সেই ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কুরুচিকর মন্তব্য করে ইতিমধ্যে সঙ্গীত প্রেমীদের চক্ষুশূল গায়ক নোবেল এই পরিস্থিতিতে গোপনে বাংলাদেশী গায়ক মইনুল হাসান নোবেলের বিরুদ্ধে তিন নম্বর বিয়ে করার অভিযোগ উঠল। শুধু তাই নয়, গৃহহিংসার অভিযোগও তোলা হয়েছে এই গায়কের বিরুদ্ধে। সংবাদ মাধ্যম সূত্রে খবর, ৭ মাস আগে গোপনে বিয়ে করেছেন তিনি। জি বাংলা, সারেগামাপা’র সেরা হওয়ার দৌড়ে ছিটকে যাওয়ার পর থেকেই অভব্য আচরণ ও মন্তব্য করতে শুরু করেন নোবেল। ফলে ভক্তদের বিরাগভাজন হয়েছেন তিনি। কমতে থাকে অনুরাগীর সংখ্যা।তার মধ্যেই ২০১৯-এর নভেম্বরে রীতিমতো পণ নিয়ে ৩ নম্বর বিয়ের অভিযোগে সরগরম এখন পদ্মাপার। জানা গিয়েছে তাঁর তৃতীয় স্ত্রীয়ের নাম মেহরুবা সালসাবিল। নববধূকে নিয়ম করে মারধরের অভিযোগেও সরব হয়েছেন নোবেলের শ্বশুরবাড়ির সদস্যরা। এর আগে রিমি নামে একটি মেয়ের সঙ্গে বিয়ে হলেও টেকেনি সেই দাম্পত্য। পরে এক আত্মীয়কে বিয়ে করে নোবেল। সেই স্ত্রীও গৃহহিংসার অভিযোগ এনে দাম্পত্যে বিচ্ছেদ এনেছে। এরপরেই নোবেলের গানের অনুরাগী মেহরুবাকে বিয়ে করেন তিনি। স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে এমন দাবি করা হয়েছে। কিন্তু তাঁর প্রতিও বিরাগভাজন এই গায়ক। এমনকি, নিজের মা-বোনের প্রতি অত্যাচারের অভিযোগেও নোবেলের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন সে দেশের সমাজকর্মীরা। জানা গিয়েছে, বর্তমানে মেহরুবাকে নিয়ে ঢাকা নিকেতনের একটি ফ্ল্যাটে থাকেন নোবেল। শৈশব ও কৈশোর গোপালগঞ্জে কাটলেও, গায়ক হওয়ার ইচ্ছাপূরণে সেই বাস ত্যাগ করেছিলেন নোবেল। নোবেলের ঘনিষ্ঠ সূত্রে খবর, বিখ্যাত হওয়ার পথে একাধিকবার মহিলা কেন্দ্রিক বিতর্কে জড়িয়েছেন এই তরুণ। যদিও সম্প্রতি সংবাদ সংস্থা কালের কণ্ঠকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এই উঠতি গায়ক মেহরুবার সঙ্গে বিয়ের প্রসঙ্গ উত্থাপণ করেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, সম্পর্কে অনেক জড়িয়েছেন। কিন্তু বিয়ে এটাই প্রথম। তবে, নোবেল ঘনিষ্ঠ মহলের দাবি,”এটা তাঁর তৃতীয় বিয়ে।” এদিকে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে কুৎসা ছড়ানোর অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে ত্রিপুরা পুলিশে একাধিক ধারায় মামলা রুজু হয়েছে।ভারতে ঢুকলেই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হবে বলে জানিয়েছে ত্রিপুরা পুলিশ। ইতিমধ্যে গোয়েন্দা সংস্থা র‍্যাব নোবেলকে ডেকে পাঠিয়েছিলেন। তাদের দফতরে গিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে করা মন্তব্যের জন্য ক্ষমাপ্রার্থনাও করেছেন নোবেল। এমনকি, সেই বিতর্কিত পোস্ট নিজের ফেসবুক থেকে সরিয়েও দিয়েছেন।

তবে, ত্রিপুরা পুলিশ সূত্রে খবর, মইনুল হাসান নোবেলের বিরুদ্ধে সোমবার মামলা দায়ের করেছেন রাজ্যের এক তরুণ সুমন পাল। ওই অভিযোগের একটি প্রতিলিপি পাঠানো হয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক, বাংলাদেশ হাই কমিশন ও জেলার পুলিশ সুপারের কাছে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই ভারতে প্রবেশ করলে নোবেলকে গ্রেপ্তার করা হবে। নিজের অভিযোগ পত্রে সুমনের দাবি, “দেশের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে এহেন কুরুচিকর মন্তব্য করায় নোবেলের ভিসা বাতিল এবং তাঁর পাসপোর্ট বাজেয়াপ্ত করা হোক।” এর আগে বিশ্ব বরেণ্য কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বিরুদ্ধেও কুরুচিকর মন্তব্য করে বিতর্ক উসকে দিয়েছিলেন নোবেল।