মিয়ানমারের সঙ্গে প্রত্যাবাসন চুক্তির প্রতিবাদে বিক্ষোভে রোহিঙ্গারা

প্রকাশিত

রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে মিয়ানমারের সঙ্গে বাংলাদেশের চুক্তির প্রতিবাদে কক্সবাজারে গতকাল শুক্রবার বিক্ষোভ করেছেন কিছু রোহিঙ্গা।

কুতুপালং শরণার্থী শিবিরে বিক্ষোভের সময় রোহিঙ্গারা তাঁদের ফেরত পাঠানোর আগে মিয়ানমারে নাগরিকত্ব এবং সেখানে নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দাবি করেন। এ ছাড়া মিয়ানমারে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে একটি নিরাপদ এলাকা গড়ে তোলার দাবি জানান তাঁরা।

তবে বাংলাদেশ সরকারের কর্মকর্তারা বলছেন, রোহিঙ্গাদের এ ধরনের বিক্ষোভের কোনো তথ্য তাঁদের জানা নেই।

বিক্ষোভের একটি ভিডিওতে দেখা যায়, আনুমানিক শ-খানেক লোক সেখানে জড়ো হয়েছেন। বিক্ষোভকারীদের সামনে ছিল ইংরেজিতে লেখা একটি ব্যানার। এতে ছয়টি দাবি তুলে ধরা হয়। মিয়ানমারের রাখাইনে জাতিসংঘের নিরাপত্তা বাহিনীর উপস্থিতিতে একটি নিরাপদ অঞ্চল গড়ে তোলার দাবি জানানো হয় এতে।

বিক্ষোভের সংগঠকদের একজন নিজেকে মহিবুল্লাহ বলে পরিচয় দেন। তিনি বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন, সকাল আটটায় কুতুপালং শিবিরের ই ব্লকে এই বিক্ষোভ হয়। তিনি বলেন, ‘আমাদের বাংলাদেশ থেকে মিয়ানমারে ফেরত পাঠানোর সময় এখনো আসেনি। এ জন্য আমরা আজ (শুক্রবার) সকাল আটটায় এই বিক্ষোভ করেছি। রাখাইনে আমাদের জন্য একটি নিরাপদ অঞ্চল গড়ে তুলতে হবে। রোহিঙ্গা হিসেবে আমাদের নাগরিকত্ব নিশ্চিত করতে হবে। আমাদের ওপর যারা অবিচার করেছে, তাদের বিচার করতে হবে। তাহলে আমরা ফেরত যেতে পারি।’

তবে কুতুপালংয়ে স্থানীয় সাংবাদিক এবং রোহিঙ্গাদের অনেকের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তাঁরা এই বিক্ষোভ সম্পর্কে কিছুই জানেন না।উখিয়া উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নিকারুজ্জামান বলেন, এ ধরনের কোনো বিক্ষোভের কথা তিনি শোনেননি।