মুর্শিদাবাদে সেতু থেকে বাস নদীতে, বহু হতাহতের আশঙ্কা

প্রকাশিত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ জেলায় সোমবার সকালে সেতুর রেলিং ভেঙে যাত্রীভর্তি একটি বাস নদীতে পড়ে যাওয়ায় বহু হতাহতের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এরই মধ্যে তিন জনের নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বাসটিতে ৬০-৭০ জন আরোহী ছিলেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নয় জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে, করিমপুর থেকে মালদহ যাচ্ছিল বাসটি। সকাল ৭টা ১০ মিনিটের দিকে দৌলতাবাদে বালিরঘাট সেতুর ওপর দিয়ে যাওয়ার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি নদীতে পড়ে যায়। স্থানীয় লোকজন ছুটে এসে ১০ জনকে উদ্ধার করে, যাদের মধ্যে এক বয়স্ক নারী হৃদরোগে মারা যান।

দুর্ঘটনার খবর দেওয়ার পরও বেশ দেরিতে আসায় পুলিশের সঙ্গে স্থানীয় জনতার সংঘর্ষ শুরু হয়। বিক্ষুব্ধ জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিচার্জ করে ও কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ে পুলিশ। কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলিও ছোঁড়া হয়। পুলিশ জানিয়েছে, দমকল বাহিনীর সঙ্গে উদ্ধার কাজে যোগ দিয়েছে তারা।

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী জানিয়েছেন, একটি লরিকে ওভারটেক করতে গিয়ে সেতুর রেলিংয়ের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে নদীতে পড়ে যায় বাসটি। তবে জীবিত উদ্ধার করা যাত্রীদের কয়েক জন বলেছেন, মুঠোফোনে কথা বলছিলেন গাড়িচালক। ফলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি দুর্ঘটনার শিকার হয়।

তথ্যসূত্র : এনডিটিভি অনলাইন