মুলতানের অভিষেক তামিমদের জালমিকে হারিয়ে!

প্রকাশিত

ক্রীড়া ডেস্ক: পাকিস্তান সুপার লিগের তৃতীয় আসরের পর্দা উঠেছে বৃহস্পতিবার রাতে। উদ্বোধনী দিনে মুখোমুখি হয় বর্তমান চ্যাম্পিয়ন পেশোয়ার জালমি ও নবাগত দল মুলতান সুলতানস। অভিষেকেই বাজিমাত করেছে মুলতান। হারিয়ে দিয়েছে চ্যাম্পিয়নদের।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :
পেশোয়ার জালমি : ১৫১/৬ (২০ ওভারে)
মুলতান সুলতানস : ১৫২/৩ (১৯.১ ওভারে)
ফল : মুলতান ৭ উইকেটে জয়ী
ম্যাচসেরা : কুমার সাঙ্গাকারা।

পেশোয়ার জালমি প্রথমে ব্যাট করতে নেমে মোহাম্মদ হাফিজের ৫৯ রানে ভর করে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৫১ রান তোলে। জবাবে সাঙ্গাকারার ৫৭ ও শোয়েব মালিকের অপরাজিত ৪২ রানের ইনিংসে ভর করে ১৯.১ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়েই জয় তুলে নেয় মুলতান সুলতানস। ম্যাচসেরা হন কুমার সাঙ্গাকারা।

১৫২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৭ রানেই অবশ্য প্রথম উইকেট হারিয়ে বসেছিল মুলতান। এ সময় ওয়াহাব রিয়াজের বলে আউট হয়ে যান আহমেদ শেহজাদ। ৬ বল মোকাবেলা করে কোনো রান করতে পারেননি তিনি। দ্বিতীয় উইকেটে সাঙ্গাকারার সঙ্গে ৪৭ রানের জুটি গড়ে ফিরে যান শোয়েব মাকসুদ (২১)।

এরপর শোয়েব মালিকের সঙ্গে তৃতীয় উইকেটে ৫২ রানের জুটি গড়েন কুমার সাঙ্গাকারা। তুলে নেন ফিটটি। তবে ১০৬ রানের মাথায় ওয়াহাব রিয়াজের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হন তিনি। ৫১ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় ৫৭ রানের ইনিংস খেলে দলের জয়ের ভিত গড়ে দিয়ে যান অভিজ্ঞ সাঙ্গাকারা। এরপর কিরেন পোলার্ডকে সঙ্গে নিয়ে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন শোয়েব মালিক। শেষ পর্যন্ত মালিক ৩০ বলে ২ চার ও ২ ছক্কায় ৪২ রানে অপরাজিত থাকেন। তার সঙ্গে ১৩ বলে ৪ চারে ২১ রানে অপরাজিত থাকেন পোলার্ড।

তার আগে পেশোয়ার জালমির ইনিংসে মোহাম্মদ হাফিজ ৫২ বলে ৬ চার ও ১ ছক্কায় সর্বোচ্চ ৫৯ রান করেন। ২৯টি রান করেন অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি। ডোয়াইন স্মিথের ব্যাট থেকে আসে ২৪টি রান। ১৪টি রান করেন হারিস সোহেল। আর তামিম ইকবাল করেন ১১ রান।

বল হাতে মুলতান সুলতানসের মোহাম্মদ ইরফান ২টি উইকেট নেন। ১টি করে উইকেট নেন সোহেল তানভীর, জুনাইদ খান, ইমরান তাহির ও হার্দাস ভিলজোয়েন।