মোবাইল ফোনের বাজারে ঈদের আমেজ

প্রকাশিত

আর কয়েকদিন পার হলেই মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর। তাই এ উৎসবকে নিয়ে উৎসাহটাও একটু বেশি। আর নতুন পোষাক ছাড়া তো ঈদ কল্পনাই করা যায় না। ফলে ঈদের সবটুকু আমেজ থাকে পোষাকের বাজারে।

 
ঈদে পোষাকের বাজার রমরমা থাকলেও এর তেমন একটা প্রভাব পড়ে না ইলেক্ট্রনিক্স পণ্যের বাজারে। তবে ঈদের বাজারের শেষের দিকে ঈদের কিছুটা আভাস লেগেছে মোবাইল ফোনের বাজারে। শেষ সময়ে মোবাইলের দোকানগুলোতে বেড়েছে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের ভিড়। আর ক্রেতাদের আকর্ষণ বাড়াতে মোবাইল কোম্পানিগুলো দিচ্ছে নানা রকমের অফার।
 
ঈদ উপলক্ষে বিভিন্ন ব্রান্ডের মোবাইল ফোনে দেওয়া হচ্ছে বিশেষ মূল্য ছাড়। একই সাথে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের গিফট ও গ্যাজেট, রয়েছে বান্ডেল অফারও। এছাড়া নির্দিষ্ট কোম্পানির ক্রেডিট কার্ডে ইএমআই সুবিধা তো রয়েছেই।
 
বসুন্ধরা সিটি সপিং কমপ্লেক্সের স্যামস্যাং মোবাইলের বিক্রয় কর্মীরা জানান, ঈদ উপলক্ষে নির্দিষ্ট মডেলের ফোনগুলোতে দেওয়া হচ্ছে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত ক্যাশব্যাক। রয়েছে সাউন্ড বোতল, ৪জিবি পর্যন্ত জিপি ইন্টারনেট, ওয়ারলেস চার্জার। এছাড়া লটারির মাধ্যমে বিজয়ীরা দেশের সাতটি স্থানে ভ্রমণের সুবিধা পাবেন।
 
একই শপিংমলের অপোর বিক্রয়কর্মী জানান, ঈদ উপলক্ষে তাদের নির্দিষ্ট মডেলের স্মার্টফোনের সাথে দেওয়া হচ্ছে সেলফি স্টিক, ব্লু-টুথ স্পিকার ও গিফট বক্স।
 
বিক্রেতারা জানান, ঈদকে সামনে রেখে স্মার্টফোনের চাহিদা কিছুটা বেড়েছে। তবে গত বছরের তুলনায় এবছরের ঈদে মোবাইলের বাজার কিছুটা খারাপ যাচ্ছে। তবে তারা আশা করেন সামনের কয়েকদিনে স্মার্টফোন বিক্রির পরিমান বাড়বে।
 
এখন অনেকেই মার্কেটে এসে ফোন পছন্দ করছেন, ফোনের দাম ও ফিচার সম্পর্কে ধারনা নিচ্ছেন। এই ধরনের দর্শনার্থীরা ঈদের পূর্বেই ফোন কিনবেন। তাই শেষ সময়ে বিক্রি আরো বাড়বে।
 
মালিবাগ থেকে আসা রফিকুল ইসলাম ঢাকাটাইমসকে বলেন, ছেলে এবছর এসএসসি পাশ করেছে। রেজাল্টের পর মোবাইলের জন্য আবদার করেছে। ঈদে দেওয়ার কথা বলেছি, তাই ছেলের ঈদ উপহার হিসেবে স্মার্টফোন কিনে দিচ্ছি। এমন অনেক আবদার পূরণ করতেই ঈদে পোশাকের বাজারের সাথে সাথে মোবাইলের বাজারেও বেড়েছে ক্রেতাদের ভিড়।

Be the first to write a comment.

Leave a Reply