যুক্তরাষ্ট্রে ফ্লাইওভার থেকে ছিটকে পড়ল ট্রেন, বহু হতাহত

প্রকাশিত

যুক্তরাষ্ট্রে ফ্লাইওভার থেকে একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে ছিটকে রাস্তায় পড়ে তিনজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন শতাধিক।

ওয়াশিংটনের স্থানীয় সময় সোমবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে অ্যামট্রাক কোম্পানির যাত্রীবাহী ট্রেনটির নতুন একটি রুটের উদ্বোধনী যাত্রায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। খবর বিবিসির।

স্থানীয় কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে বিবিসি নিহতের সংখ্যা তিনজন জানালেও আন্তর্জাতিক বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমে এই সংখ্যা ছয়জন বলে জানিয়েছে।

জানা গেছে, পোর্টল্যান্ড থেকে সিয়াটলে যাওয়ার পথে ৪৫ মিনিট চলার পর দুর্ঘটনার কবলে পড়ে ট্রেনটি। দুর্ঘটনার আগ মুহূর্তে ট্রেনটি ঘণ্টায় ৮০ মাইল গতিতে চলছিল।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, ট্রেনের ১৪টি বগির মধ্যে ১৩টি বগিই লাইনচ্যুত হয়ে নিচে থাকা আই-ফাইভ হাইওয়েতে আছড়ে পড়ে। এ সময় বগিগুলোর ধাক্কায় ফ্লাইওভারের নিচের সড়কে থাকা কমপক্ষে সাতটি যানবাহন বিধ্বস্ত হয়।ট্রেনটিতে সেসময় ৮০জন যাত্রী ছিল বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

হেলিকপ্টার থেকে তোলা ছবিতে ফ্লাইওভারের দুই পাশেই ট্রেনের বগিগুলো পড়ে থাকতে দেখা গেছে। এছাড়া একটি বগিকে খুব বিপজ্জনকভাবে ঝুলে থাকতে দেখা গেছে।

এই ঘটনায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির কথা বলছে কাউন্টি শেরিফ ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্র এড ট্রোয়ার। তিনি বলেছেন এই মুহুর্তে যেটুকু বলতে পারি ট্রেনটিতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। রাস্তার কথা বলতে পারছি না। বহু মানুষ সাহায্যের জন্যে এগিয়ে এসেছে। অনেককেই বিধ্বস্ত ট্রেন থেকে বের করে আনা হয়েছে। উদ্ধারকাজে এখনো অনেক সময় লাগবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। ওয়াশিংটন গভর্নর জরুরি অবস্থার ঘোষণা করে উদ্ধার তৎপরতায় আহ্বান জানিয়েছেন।

ট্রেনটির এক যাত্রী ক্রিস কারেন্স জানান, দুর্ঘটনার সময় আমরা আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পরেছিলাম। জাতীয় নিরাপত্তা বোর্ড দুর্ঘটনার কারণ জানতে তদন্ত শুরু করেছে।

Be the first to write a comment.

Leave a Reply