যেদিন থেকেই স্বাভাবিক ছন্দে ফেরার চেষ্টা ! সেদিনই দীর্ঘ হল আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা

প্রকাশিত

তুহিন সারোয়ার- সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিংয়ের দফারফা। দীর্ঘ ৬৬ দিন পর আবার খুলে গেল  অফিস-দোকান-পাট। বন্ধ থাকছে শুধু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। অথচ যেদিন থেকে আবার স্বাভাবিক ছন্দে ফেরার চেষ্টা চালাল, সেদিনই রেকর্ড হল আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যায়।
করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে মারা গিয়েছেন ৪০ জন। আর এই সময়ের মধ্যে ২৫৪৫ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। ফলে এখনও পর্যন্ত বাংলাদেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৬৫০ জনের।
রবিবার  স্বাস্থ্য অধিদফতরের অনলাইন ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হওয়া ৪০ জনের মধ্যে পুরুষ ৩৩ জন ও নারী ৭ জন। এখনও পর্যন্ত  মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪৭১৫৩ জন। তবে, আশার খবর একটাই, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাকে জয় করে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪০৬ জন। এখনও পর্যন্ত মোট ৯৭৮১ জন সুস্থ হয়েছেন সে দেশে।
তবে, প্রশাসনকে চিন্তায় রাখছে জনজীবন স্বাভাবিক হওয়ার পর সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিংয়ের দফারফা হয়ে যাওয়ার বিষয়টি। আশঙ্কা যে অমূলক নয়, তার দেখা মিলেছে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ও মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া লঞ্চ ঘাটে। সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিংকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে সেখানে পাশাপাশি বহু মানুষের ভিড়। প্রশাসনের তরফে তাই সকলের কাছেই আবেদন করা হয়েছে, বাইরে বেরোলেও সমস্ত বিধিনিষেধ মেনে চলুন।