যেভাবে ফাঁদে ফেলে তরুণীদের যৌনপল্লীতে নেয়া হয়

প্রকাশিত

ঢাকা: রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া পতিতাপল্লী থেকে অভিযান চালিয়ে ৩ তরুণীকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব। বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) রাত ৮টা থেকে ১১টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে ওই তরুণীদের উদ্ধার করা হয়।এদের মধ্যে একজনকে তার অভিভাবকের কাছে এবং দুজনকে ফরিদপুর নারী পুনর্বাসন কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-৮ ফরিদপুর ক্যাম্পের অধিনায়ক মো. রইছ উদ্দিনের নেতৃত্বে সর্দারনীর বাড়িতে র‌্যাবের অভিযান পরিচালনা করলে সর্দারনী ফারজানা কৌশলে পালিয়ে যায়। এ সময় ঘরে তালাবদ্ধ অবস্থায় ওই ৩ তরুণীকে উদ্ধার করা হয়।-যুগান্তর

র‌্যাব জানায়, উদ্ধারকৃত ৩ তরুণী ঢাকার একটি গার্মেন্টে চাকরি করাকালীন অজ্ঞাতনামা কতিপয় প্রতারক চক্রের সদস্য উচ্চ বেতনে চাকরি দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ৪ বছর আগে সবাইকে রাজবাড়ি জেলার দৌলতদিয়া পতিতা পল্লীতে জনৈক ফারজানা নামক এক সর্দারনীর নিকট বিক্রি করে দেয়।

পরবর্তীতে তারা পতিতা পল্লী থেকে যেতে চাইলে তাদের উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালানো হয়। তাদের ইচ্ছার বিরুদ্ধে দেহ ব্যবসায় বাধ্য করা হয়।

Be the first to write a comment.

Leave a Reply