রসিক নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের দরকার নেই: এরশাদ

প্রকাশিত

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ বলেছেন, আগামী ২১ ডিসেম্বর রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের দরকার নেই। এই নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে।

সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) দুপুরে রংপুরের পল্লী নিবাসের বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা বলেন তিনি।এসময় তার সঙ্গে এরশাদের ছোট ভাই ও দলের কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদেরসহ অন্যান্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

এরশাদ বলেন, এবারের ভোটে কারচুপির কোনো সুযোগ নেই। সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে তার বা দলের কোনো সংশয় নেই।ব্যক্তি মোস্তফার বিপুল জনপ্রিয়তা রয়েছে তার সঙ্গে রয়েছে লাঙ্গলের জনপ্রিয়তা। তার প্রার্থী মোস্তফা এবার বিপুল ভোটে রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে নির্বাচিত হবেন।সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে জাপা চেয়ারম্যান বলেন, বিএনপি কী কারণে সেনাবাহিনী মোতায়েন চাচ্ছে তা তারাই জানে। এখন পর্যন্ত নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ রয়েছে বলে তিনি মনে করেন।

অপরদিকে, নির্বাচনে তার দলের প্রার্থী নির্বাচনী আচরণবিধি মেনেই কাজ করছে দাবি এরশাদের।

নির্বাচন কমিশন দ্বৈত আচরণ করছে বিএনপি‘র সঙ্গে এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটা নির্বাচন কমিশনের ব্যাপার তবে আমি নির্বাচন কমিশনারের সঙ্গে কথা বলে বুঝতে পারছি তিনি ভালো মানুষ। তিনি সুষ্ঠু, অবাধ নির্বাচন আমাদের উপহার দিবেনজাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ আগামী ২১ ডিসেম্বর রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নগরীর সেনপাড়াস্থ ভোটকেন্দ্রে ভোট প্রদানের জন্য ৪দিনের সফরে রংপুরে আসেন।উল্লেখ্য, আগামী ২১ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে এই ভোট। এখানে মেয়র পদে ৭ জন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৬৫ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২১১ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ১৯৩ টি ভোট কেন্দ্রের ১ হাজার ১২২টি বুথে সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ চলবে।

Be the first to write a comment.

Leave a Reply