রাঙামাটিতে অফিসে ঢুকে ইউপি সদস‌্যকে গুলি করে হত্যা

প্রকাশিত

রাঙামাটি প্রতিনিধি-

রাঙামাটির বাঘাইছড়িতে সরকারি অফিসের ভেতরে ঢুকে গুলি করে এক ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস‌্যকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

রাঙামাটির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ছুফি উল্লাহ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিহত সমর বিজয় চাকমা (৪০) বাঘাইছড়ির রূপকারি ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস‌্য। তিনি জেএসএস এমএন লারমা দলের বাঘাইছড়ি থানা কমিটির স্কুল বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্বে ছিলেন।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ছুফি উল্লাহ জানান, দুপুরে উপজেলা পরিষদের প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়ের ভেতরেই অবস্থান করছিলেন সময় বিজয় চাকমা। এসময় মুখোশধারী একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী অতর্কিতভাবে রুমের ভেতরে ঢুকে সমরকে লক্ষ্য করে গুলি করে। এতে ঘটনাস্থলেই গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন সমর।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক‌্যাল অফিসার বিষ্ণুপদ ঘটনাস্থলে গিয়ে সমরকে পরীক্ষা করেন। সেসময় তিনি মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। পরে বাঘাইছড়ি থানার পুলিশকে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়।

ঘটনার পরপরই মারিশ্যা বিজিবি জোনের সিও, বাঘাইছড়ি থানার ওসিসহ উপজেলা প্রশাসনের সর্বোচ্চ কর্মকর্তাগণ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এদিকে জেএসএস এমএনলারমা দলের বাঘাইছড়ি থানা কমিটির সাধারণ সম্পাদক জোসি চাকমা এক বিবৃতিতে বলেন, ‘জেএসএস সন্তুলারমা দলের অস্ত্রধারী মনিময়ের নেতত্বে আমার দলের ছাত্র বিষয়ক সম্পাদককে উপজেলা পরিষদ কক্ষে পিআইও অফিসে ঢুকে গুলি করে হত্যা করে। আমি এই হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জানাই। সন্ত্রাসীদের দ্রুত গ্রেপ্তার এবং সুষ্ঠু বিচারের দাবি করছি।’

তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করে জেএসএস সন্তু লারমা দলের বাঘাইছড়ি থানা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ত্রিদিপ চাকমা বলেন, ‘আমাদের দলে কোনো সন্ত্রাসী কার্যক্রম নেই। আমারা চুক্তি বাস্তবায়নের কাজ করছি। তাদের দলীয় কোন্দলের কারণে এ ঘটনা ঘটেছে।’

বাঘাইছড়ি থানার এসআই মো. আসাদ জানান, মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনা তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।