রায়কে কেন্দ্র করে গ্রেপ্তার ১১০০ : বিএনপি

প্রকাশিত

বিশেষ প্রতিবেদক : ৮ ফেব্রুয়ারি দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে এ পর্যন্ত সারা দেশে ১১০০ এর বেশি নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি।

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য তুলে ধরেন দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

খালেদা জিয়ার সিলেট যাত্রাপথে নেতা-কর্মীদের ওপর পুলিশের ‘হামলা-গ্রেপ্তারের’ চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ওপর ভর করে সরকার তার স্বৈরাচারী গণতন্ত্রবিনাশী ইচ্ছা পূরণ করছে। বাংলাদেশকে এখন একটি আদর্শ পুলিশী রাষ্ট্রে পরিণত করতে বর্তমান শাসকগোষ্ঠী সক্ষম হয়েছে।’

‘বিএনপি চেয়ারপার্সনকে অভ্যর্থনা জানাতে অপেক্ষমাণ জনগণ ও বিএনপি নেতা-কর্মীদের ওপর আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহিংস আক্রমণের পরেও যে দৃঢ় মনোবল প্রদর্শন করেছে, তা নজীরবিহীন। এই দৃঢ়তা, এই প্রত্যয় প্রমাণিত হয়- জাতীয়তাবাদী শক্তিকে নিঃশেষ করা যাবে না, খালেদা জিয়াকে ধ্বংস করা যাবে না’ বলেন বিএনপির এই নেতা।

রিজভী বলেন, ‘৮ ফেব্রুয়ারিতে সরকার প্রধানের ইচ্ছা পূরণ নিশ্চিত করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বেপরোয়া উন্মত্তায় বিএনপির ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ছে। কিন্তু সরকার মনে হয় রায় নির্ধারণ করে রেখেছে বলেই প্রতিক্রিয়ার অজানা আতঙ্কে বিএনপি নেতা-কর্মীদের ওপর বুলডোজার চালাচ্ছে।’

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিব উন নবী খান সোহেল আটকের প্রসঙ্গ তুলে তিনি বলেন, ‘সিলেট থেকে ফেরার পর তিনি কোথায় আছেন আমরা এখন পর্যন্ত জানতে পারিনি।’

রিজভী নেতা-কর্মী বিরুদ্ধে হওয়া মামলা প্রত্যাহার করে তাদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান।