রেল দুর্ঘটনায় প্রাণহানির ৮০ ভাগই ঘটে অবৈধ লেভেল ক্রসিংয়ে

প্রকাশিত

ডেস্ক রিপোর্ট: রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক বলেছেন, রেল দুর্ঘটনায় প্রাণহানির ৮০ ভাগই ঘটে অননুমোদিত বা অবৈধ লেভেল ক্রসিং গেইটে। যারা রেল দুর্ঘটনার শিকার হয়েছেন তারা এসব লেভেল ক্রসিং অতিক্রম করার সময় বিভিন্ন যানের আরোহী ছিলেন।

বৃহষ্পতিবার জাতীয় সংসদে সংসদ সদস্য দিদারুল আলমের (চট্টগ্রাম-৪) এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘২০০৯-১০ সাল থেকে ২০১৬-১৭ সাল পর্যন্ত ৮ বছরে ১ হাজার ৩৯১টি রেল দুর্ঘটনায় ২০৩ জন নিহত ও ৫৮৬ জন আহত হয়েছে। সারাদেশে  রেলওয়েতে লাইনচ্যুতিসহ মেইন লাইন ও শাখা লাইনে ২০০৯-১০ সালে ৩০৮টি দুর্ঘটনায় ২২ জন নিহত ও ৩৬ জন আহত, ২০১০-১১ সালে ২২৪টি দুর্ঘটনায় ৩৮ জন নিহত ও ১১৪ জন আহত, ২০১১-১২ সালে ১৮২টি দুর্ঘটনায় ২১ জন নিহত ও ৪১ জন আহত, ২০১২-১৩ সালে ১৭৬টি দুর্ঘটনায় ২৮ জন নিহত ও ৫৫ জন আহত, ২০১৩-১৪ সালে ২০৩টি দুর্ঘটনায় ৪৩ জন নিহত ও ১৪০ জন আহত, ২০১৪-১৫ সালে ১০৯টি দুর্ঘটনায় ২৭ জন নিহত ও ৯০ জন আহত, ২০১৫-১৬ সালে ১১৭টি দুর্ঘটনায় ১২ জন নিহত ও ৩৪ জন আহত এবং ২০১৬-১৭ সালে ৭২টি দুর্ঘটনায় ১২ জন নিহত ও ৩৭ জন আহত হয়েছেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘২০০৯ সালের জুন থেকে ২০১৭ পর্যন্ত এসব দুর্ঘটনায় রেলওয়ের সম্পদের ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ২৫ কোটি ৫৫ লাখ ৪৮ হাজার ৮৬৪ টাকা।’

তিনি বলেন, ‘বর্তমান সরকারের ঐকান্তিক সহযোগিতায় লেভেল ক্রসিং গেইট উন্নয়নের প্রকল্প চলমান রয়েছে। লেভেল ক্রসিং গেইট উন্নয়ন সম্পন্ন হলে এবং এসব লেভেল ক্রসিংয়ে লোকবল নিয়োজিত হলে দুর্ঘটনার সংখ্যা ব্যাপকভাবে হ্রাস পাবে। আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের পর থেকে এ পর্যন্ত মোট ৭৬ লাখ ৩৩ হাজার ৭১১ কোটি ৩২ লাখ টাকা ব্যয়ে ৬৫টি নতুন প্রকল্প গ্রহণ করা হয়। এর মধ্যে ৫১টি প্রকল্প শেষ হয়েছে। এছাড়া ২০১৭-১৮ অর্থবছরে রেলওয়েতে আরো ৪৩টি উন্নয়ন প্রকল্প চলমান রয়েছে। এ সরকারের আমলে ২৮৪ দশমিক ১৫ কিলোমিটার নতুন রেলপথ নির্মাণ করা হয়েছে।’