র‌্যাব সদস্যদের উপর হামলা, ইউপি চেয়ারম্যানসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিত

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি-

র‌্যাব সদস্যদের উপর চোরাচালানিদের হামলা, গাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। রবিবার খুলনা র‌্যাব-৬ এর সাতক্ষীরা ক্যাম্পের উপ-পরিদর্শক এলাহি মিয়া বাদি হয়ে শ্যামনগর থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

এই মামলায় ইতোমধ্যে রমজাননগরের ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আল মামুনকে গ্রেফতার দেখিয়ে আজ সোমবার আদালতের মাধ্যমে জেল-হাজতে পাঠানো হয়েছে।

মামলার অপর আসামিরা হলেন- শ্যামনগর উপজেলার রামচন্দ্রপুর গ্রামের সামছুল আলী গাজীর ছেলে ইউনুছ আলী, একই উপজেলার রমজাননগর গ্রামের শেখ মাকসুদ হোসেনের ছেলে মজিবুল ইসলাম, একই গ্রামের নেসার মোল্লার ছেলে হযরত আলী, আব্দুল হামিদের ছেলে ফজের আলী, শেখ আব্দুল গফফারের ছেলে শেখ আলমগীর হোসেন ও শিবচন্দ্রপুর গ্রামের বিল্টু বর্মনের ছেলে প্রদীপ বর্মণসহ অজ্ঞাতনামা ৩০/৪০ জন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, গত ১৬ জুলাই রাত পৌনে ১০টার দিকে বাদি এলাহী মিয়াসহ র‌্যাব সদস্যরা রমজাননগর ইউনিয়নের তিন নং ওয়ার্ডের তিন রাস্তার মোড়ে মাদক কেনা বেচা হচ্ছে মর্মে গোপন খবরের ভিত্তিতে তারা রাত ১০টায় ঘটনাস্থলে যান। এ সময় র‌্যাব এর উপস্থিতি টের পেয়ে আসামিরা পালিয়ে যায়।

কিছুক্ষণ অপেক্ষা করার পর র‌্যাব সদস্যরা ক্যাম্পের উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার পরপরই আসামিরা র‌্যাব সদস্য ও তাদের সোর্সদের মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে চাবি কেড়ে নেয়। র‌্যাব পরিচয় জানতে পেরে আসামি আল মামুনের নেতৃত্বে আসামিরা র‌্যাব সদস্যকে লোহার রড ও বাঁশের লাঠি দিয়ে এলোপাথাড়ি পিটিয়ে জখম করে ও ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে।

এ সময় র‌্যাব সদস্যদের কাছে থাকা নগদ টাকা ও কয়েকটি মোবাইল ফোন কেড়ে নেওয়া হয়। ভাঙচুর করা হয় তাদের ব্যবহৃত দু’টি মোটর সাইকেল ও একটি প্রাইভেট কার। হামলায় র‌্যাব সদস্যদের ছয় লাখ টাকা ক্ষতি হয় বলে উল্লেখ করা হয়েছে। আহত র‌্যাব সদস্যদের শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে রমজাননগর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আল মামুনকে গ্রেফতার করা হয়।

শ্যামনগর থানার অফিসার ইনচার্জ নাজমুল হুদা বলেন হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনায় র‌্যাব এর উপ-পরিদর্শক এলাহী মিয়া বাদি হয়ে সাত জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ৩০/৪০ জনের বিরুদ্ধে রবিবার থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। গ্রেফতারকৃত রমজাননগর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আল মামুনকে সোমবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।