শাহজালাল বিমানবন্দরে ৬ কেজি সোনা সহ ভারতীয় নাগরিক গ্রেফতার

প্রকাশিত

ঢাকা হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৬ কেজি স্বর্ণসহ এক ভারতীয় নাগরিককে গ্রেফতার করেছে বিমানবন্দর কাস্টমস হাউজের প্রিভেনটিভ টীম।আটককৃত ওই ভারতীয় নাগরিকের নাম সৌমিক দত্ত।রোববার দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে বিমানবন্দরের গ্রিন চ্যানেল এলাকা থেকে সোনা সহ ভারতীয় নাগরিককে গ্রেফতার করা হয়। অাটককৃত সোনার বর্তমান বাজার মূল্য প্রায় তিন কোটি টাকা।
বিমানবন্দর কাস্টমের সহকারী কমিশনার (এসি) মো: শহিদুল ইসলাম আজ সোনা আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে রিজেন্ট এয়ারের (আরএক্স-৭৮৫) নম্বরের বিমানটি শাহজালাল বিমানবন্দরে এসে অবতরণ করেন। অার ওই বিমানের যাত্রী ছিলেন ভারতীয় নাগরিক সৌমিক দত্ত।রাতে বিমানবন্দরে নেমে সৌমিত্র দত্ত গ্রিন চ্যানেল এলাকা দিয়ে বাহিরে বেহ হচিছল। তখন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিমানবন্দর কাস্টমস প্রিভেনটিভ টিমের কর্মকর্তরা অভিযান চালিয়ে তাকে গতিরোধ করে সন্দেহজনক ভাবে আটক করে। তখন তাকে ব্যাপক জিঞ্জাসাবাদ করা হয় এবং তার নিকট কোন সোনা আছে কিনা জানতে চাইলে সে অস্বীকার করেন। পরে তল্লাশী চালিয়ে তার কাছ থেকে ৬ কেজি সোনা উদ্বার করা হয়। অাটককৃত সোনার মূল্য প্রায় তিন কোটি টাকা।
কাস্টমস হাউজের প্রিভেনটিভ টিমের কর্মকর্তারা আরো জানান, প্রাথমিক জিঞ্জাসাবাদে সে সোনার অানার কথা স্বীকার করেন।উদ্বারকৃত সোনা গুলো ওয়াটার ডিসপেনসারের কম্প্রেসারে ভেতর থেকে পাওয়া যায়। স্বর্ণগুলো ছোট ছোট আকারের বল বানিয়ে কম্প্রেসারের ভেতরে অভিনব কায়দায় সে বাংলাদেশে নিয়ে আসেন তিনি।
ঢাকা কাস্টমস হাউসের উপ-কমিশনার অথেলো চৌধুরী অাজ জানান, ভারতীয় নাগরিক সৌমিত্র দত্ত এর কাছ থেকে ৬ কেজি সোনা উদ্বার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ১৯৬৯ সালের শুল্ক আইন মতে তার বিরুদ্বে প্রয়োজনীয় আইননানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।পরে তাকে বিমারবন্দর থানায় পুলিশরে নিকট সোপর্দ করা হয়েছে। জব্দ কৃত সোনা গুলো বর্তমাসে কাস্টমস এর হেফাজতে অাছে। এঘটনায় বিমানবন্দর থানায় ফৌজধারী আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।