শিবচরের ইউনিয়ন পরিষদের ভবনটি এবার পদ্মা নদীর ভাঙনে বিলিন

প্রকাশিত

 

নিজস্ব প্রতিবেদক-
মাদারীপুরের শিবচরের চরাঞ্চলের বন্দরখোলা ইউনিয়ন পরিষদের দ্বিতল ভবনটি এবার পদ্মা নদীর ভয়াবহ ভাঙনে আক্রান্ত হয়েছে। রবিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ব্যাপক ভাঙনে ইতোমধ্যেই ভবনটির পিলার নদীতে চলে গেছে। সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকালে পুরো ভবনটি পদ্মা নদীতে বিলিন হয়ে যায়।
ভবনটি কয়েক বছর আগেও নদী থেকে প্রায় ৭ কিলোমিটার দূরে ছিল। পাশেই ভয়াবহ ভাঙন ঝঁকিতে রয়েছে একটি কমিউনিটি ক্লিনিক ও কাজীরসুরা বাজারের অর্ধ শতাধিক দোকানপাটসহ বিস্তীর্ণ জনপদ। চলতি বন্যা ও নদী ভাঙনে শিবচরের চরাঞ্চলের ৪টি বিদ্যালয় নদীতে বিলীন হয়ে গেলে এখন শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। চলতি বন্যায় চরের বন্দরখোলা ইউনিয়নের নুরুদ্দিন মাদবরকান্দি এস ই এস ডি পি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ৩ তলা ভবন, চরজানাজাত ইউনিয়নের ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরী উচ্চ বিদ্যালয়ের একাধিক স্থাপনা, ইউনিয়ন পরিষদ ও কাঁঠালবাড়ি ইউনিয়নের ৭৭নং কাঁঠালবাড়ি সরকারি বিদ্যালয় কাম সাইক্লোন সেন্টারের ৩ তলা ভবনটি বিলীন হয়। আক্রান্ত হয়েছে অনেক ঘরবাড়ি।
মাদারীপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী পার্থ প্রতীম সাহা বলেন, শিবচরের চরাঞ্চরের একটি ইউনিয়ন পরিষদ ভবন পদ্মা নদীর ভাঙ্গনে বিলীন হয়ে গেছে। এর আগে আমরা বালুর বস্তা ফেলে ভাঙন রোধের চেষ্টার চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু স্রোতের কারণে ভাঙ্গন ঠেকানো যায়নি।

 

Be the first to write a comment.

Leave a Reply