শুভ জন্মদিন শাহীন সামাদ

প্রকাশিত

মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক একটি প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহযোগিতা চেয়েছেন খ্যাতনামা চিত্রনায়িকা নূতন। গত ২৫ ডিসেম্বর রাজধানীর শাহবাগে পাবলিক লাইব্রেরীর শওকত ওসমান মিলনায়তনে ‘স্বাধীনতা সংসদ’ আয়োজিত ‘মুক্তিযুদ্ধ আমার অহংকার, স্বাধীনতা আমার শ্রেষ্ঠ অর্জন’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হকের দৃষ্টি আকর্ষণ করে নূতন বলেন, ‘স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র প্রয়াত চাষী নজরুল ইসলাম পরিচালিত ‘ওরা ১১জন’ ছবির নায়িকা আমি। যুদ্ধের সময় ভাতের ফেন খেয়ে থেকেছি। কষ্ট করেছি। অনেক কষ্ট করে আমি শিল্পী হয়েছি। নিজের চোখে অনেক কিছুই দেখেছি। অনেক মুক্তিযোদ্ধাদের অবহেলিত জীবনের কথা আমি জানি। শিল্পী হতে গিয়ে নিজের জীবনের কিছুই হয়নি আমার। নেই টাকা, নেই জমি। কিন্তু এই সময়ে এসে আমি মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে একটি প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণ করতে চাই। উপস্থিত মাননীয় মন্ত্রীর মাধ্যমে আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমার এই প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণের ক্ষেত্রে সার্বিক সহযোগিতা চাই। আমার বিশ্বাস মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে সেই সহযোগিতা করবেন। আমি আমার অনেকদিনের সেই স্বপ্নটা পূরণ করতে চাই।’ নূতন আরও জানান, এই প্রামাণ্যচিত্রে মুক্তিযুদ্ধের সময়কার নানান ঘটনা এবং মুক্তিযোদ্ধাদের জীবন কাহিনী তুলে ধরা হবে। এরইমধ্যে তিনি প্রামাণ্যচিত্রটির স্ক্রিপ্টের কাজ শুরু করেছেন। এদিকে এখন ভালো কাজের প্রস্তাব পেলে মাঝে মাঝে চলচ্চিত্রে দেখা যায় নূতনকে। চলতি বছর তার অভিনীত দুটি চলচ্চিত্র মুক্তি পেয়েছে। একটি ‘অহংকার’ এবং অন্যটি ‘রংবাজ’। নূতন জানান, নতুন বছরে তিনি বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে কাজ করবেন। উল্লেখ্য, নূতনের পারিবারিক নাম ছিলো ‘রতœা’। চলচ্চিত্রে কাজ করতে এলে প্রয়াত অভিনেত্রী সুমিতা দেবী তার পারিবারিক নাম পরিবর্তন করে রাখেন নূতন। এ পর্যন্ত তিন শতাধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার

Be the first to write a comment.

Leave a Reply