শেখ হাসিনার শাসনামলে অপরাধ করে কেউ পার পাবে না: খালিদ

প্রকাশিত
তানোর (রাজশাহী) সংবাদদাতা : আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি বলেছেন, শেখ হাসিনার শাসনামলে অপরাধ করে কেউ পার পাবে না। যে অপরাধী তাকে শাস্তি পেতেই হবে।
তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের শত শত নেতাকর্মী জেলে। দুজন মন্ত্রী দুদকের মামলায় নিয়মিত আদালতে হাজিরা দিচ্ছেন। সিরাজগঞ্জের মেয়র ও টাঙ্গাইলের এমপি কারাগারে। এ থেকে প্রমাণিত হয়, অপরাধী হলে শেখ হাসিনার হাত থেকে পার পাওয়ার কোনো উপায় নেই।
বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) বিকালে রাজশাহীর তানোরে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
খালিদ বলেন, বিএনপি নেত্রী দুর্নীতির কারণে কারাগারে গেলেন। সেখানে আওয়ামী লীগ বা সরকারের কোন হাত নেই। কিন্তু খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার কাজের মেয়েকেও কেন জেলে যেতে হবে। এ কেমন আবদার। এই কাজের মেয়ের কী অপরাধ। তার মানবাধিকার নিয়ে কোন সুশীল আজ প্রশ্ন তুলছে না। সভ্যতার এই যুগে যেটা কল্পনাও করা যায় না- মনিবের সঙ্গে কাজের মেয়ের কারাবাস। কাজের মেয়েকে নিজের সঙ্গে কারাগারে নিয়ে খালেদা জিয়া তাই করে দেখালেন।
খালেদা জিয়ার বিচারের পর কিছু কূটনীতিক ও সুশীল খালেদা জিয়ার জন্য মায়াকান্না করছে মন্তব্য করে খালিদ বলেন, এতিমের টাকা মেরে খাওয়া খালেদা জিয়ার জন্য মায়াকান্না করতে তাদের বিবেকে বাঁধে না! আদালতে প্রমাণিত হওয়ার পরও খালেদা জিয়ার প্রতি তাদের সমবেদনা কেন? যারা আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা চায় না, প্রমাণিত দুর্নীতিবাজের পক্ষে যারা কথা বলতে চায়- তারা কিসের সুশীল?
খালিদ বলেন, খালেদা জিয়া জেলে যাবার পর আরেক আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী, দুর্নীতিবাজ ও ফেরারি আসামি যে দলের দায়িত্বে আসে, সেই দলের পক্ষে কীভাবে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা ও তাদের দেশীয় দোসর কথা বলতে আসে। খালিদ বলেন, সকল রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে শেখ হাসিনা দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করে চলছেন। ভবিষ্যতেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে।
আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রীর জনসভা উপলক্ষে তানোর উপজেলার গোল্লাপাড়া বাজার মাঠে এ জনসভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি খাদেমুল নবী বাবু চৌধুরী।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুনের পরিচালনায় এতে আরো বক্তব্য রাখেন জেলা আ.লীগের সভাপতি ও স্থানীয় সাংসদ আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরী, প্রধানমন্ত্রীর একান্ত ব্যাক্তিগত সহকারী সাইফুজ্জামান শিখর, আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সম্পাদক খালিলুর রহমান, পবা-মোহনপুর আসনের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন, পুঠিয়া-দূর্গাপুর আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল ওয়াহেদ দারা প্রমুখ।