সত্যিই সোনমের বিয়ে?

প্রকাশিত

আনুশকা শর্মা আর বিরাট কোহলি বিয়ে নিয়ে যে খেল দেখিয়েছেন, তাতে এখন আর কেউই তারকাদের কাছে বোকা হতে চান না। বলিউড তারকা সোনম কাপুর যেমন তাঁর এক আত্মীয়ের বিয়ের কেনাকাটা করে সম্প্রতি গণমাধ্যমের কাছে ‘ধরা’ খেয়েছেন। বলিউডে এখন জোর গুঞ্জন, আত্মীয়ের নয়, নিজের বিয়ের প্রস্তুতিই নিচ্ছেন সোনম। দীর্ঘদিনের বন্ধু ও প্রেমিক আনন্দ আহুজার সঙ্গে এ বছরের এপ্রিলেই তিনি গাঁটছড়া বাঁধবেন বলে শোনা যাচ্ছে।

প্রেম, বিয়ে—এ ধরনের ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে সোনম বরাবরই ‘স্পিকটি নট’ নীতিতে বিশ্বাসী। তবে ব্যবসায়ী আনন্দ আহুজার সঙ্গে সোনমের প্রেম এখন অনেকটা ‘ওপেন সিক্রেট’। তাঁরা একসঙ্গে দেশে-বিদেশে ঘুরছেন, কেনাকাটা করছেন আর সেসব ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশও করছেন হরদম। ২০১৮ সালও তাঁরা একসঙ্গে বরণ করেছেন ফ্রান্সের প্যারিস শহরে বসে। এই প্রেমিক জুটিকে জনসমক্ষে প্রথম একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল নায়ক অক্ষয় কুমারের একটি পার্টিতে। ‘রুস্তম’ ছবির সাফল্য উদ্‌যাপনের জন্য অক্ষয় একটি পার্টির আয়োজন করেছিলেন। সেখানে আনন্দের হাতে হাত রেখেই পার্টিতে প্রবেশ করেছিলেন সোনম। গত বছর অনিল কাপুরের বাড়ির দীপাবলির পার্টিতেও আনন্দের দেখা মিলেছে। তিনি অবশ্য অতিথির মতো নন, বরং আয়োজকের মতোই আমন্ত্রিত অতিথিদের আপ্যায়ন করছিলেন।

২০১৬ সালে সোনমের বাবা অনিল কাপুরের ৬০তম জন্মদিন উপলক্ষে লন্ডনে একটি ঘরোয়া পার্টির আয়োজন করেছিল তাঁর পরিবার। এই পারিবারিক আয়োজনে আমন্ত্রিত ছিলেন আনন্দ আহুজাও। একেবারেই পারিবারিক একটি আয়োজনে আনন্দের উপস্থিতি সোনমের সঙ্গে তাঁর প্রেমের গুঞ্জনকে আরও জোরদার করেছিল। তার ওপর আবার পার্টিতে তোলা কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ করে আনন্দ আহুজা ক্যাপশনে লিখেছিলেন ‘পারিবারিক উদ্‌যাপন’। তাঁর মানে তিনি এখন কাপুর পরিবারেরই একজন।

গত বছর প্রথমবারের মতো জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন সোনম। রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে এই পুরস্কার গ্রহণ করার সময়েও আনন্দ আহুজা এই ‘নিরজা’ তারকাকে সঙ্গ দেন। সোনমের বাবা অভিনেতা অনিল কাপুরের সঙ্গেও আনন্দের ভালো সখ্য দেখা গেছে সেদিন। মনে হচ্ছে, সোনমের মা-বাবা এখন থেকেই আনন্দ আহুজাকে তাঁদের জামাতা ভাবতে শুরু করেছেন। মিয়া-বিবি রাজি, রাজি তাঁদের মা-বাবাও, তাহলে বিয়ের বাদ্যি বাজতে আর দেরি কেন?

শোনা যাচ্ছে, এই বছরের এপ্রিল মাসে ভারতের যোধপুরে সোনম আর আনন্দের জমকালো বিয়ের আয়োজন করা হবে। সেখানে উপস্থিত থাকবেন প্রায় ৩০০ জন অতিথি। তবে এখন পর্যন্ত এই বিষয়ে সোনম ও আনন্দ কোনো মন্তব্য করেননি। মুখ খোলেননি তাঁদের পরিবারের কেউই। তাই বলে বিয়ের গুঞ্জনটিকে একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। কারণ, ‘বিরুশকা’-র বিয়ের গুজবে যখন চাউর হয়, তখন তাঁরাও তো খোলাসা করে কিছু বলেননি। তথ্যসূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া