সাভারে ডাকাতি, বাধা দেওয়ায় গৃহবধূকে ধর্ষণ

প্রকাশিত

সাভার প্রতিনিধি : সাভারে এক শ্রমিক কলোনির চারটি পরিবারে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতিকালে বাধা দেওয়ার সময় ডাকাতরা এক গৃহবধূকে ধর্ষণ করেছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

রবিবার (৮ জুলাই) ভোর ৪টার দিকে সাভারের তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ভুক্তভোগীরা জানান, ডাকাতরা আটজনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে। চারটি পরিবারের সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে প্রায় ১০ লাখ টাকার মালামাল লুটপাট করে পালিয়ে গেছে।

ডাকাতির শিকার পরিবারের সদস্যরা জানান, সাভারের ওই শ্রমিক কলোনিতে বসবাস করে কয়েকটি পরিবার। ভোরে ১৫ সদস্যের একদল ডাকাত প্রবেশ করে চারটি পরিবারের পুরুষদের সবাইকে একটি ঘরে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে হাত-পা বেঁধে রাখে। ডাকাতরা চার পরিবার থেকে ৫০ হাজার টাকা, কয়েক ভরি স্বর্ণালংকার, তিনটি অটোরিকশা, কয়েকটি টেলিভিশন, কয়েকটি মোবাইল ফোনসহ প্রায় ১০ লাখ টাকার মালামাল লুটপাট করে। লুটপাটে বাধা দেওয়ায় ডাকাতরা এক গৃহবধূকে ধর্ষণ করে এবং আরেকজনকে ধর্ষণের চেষ্টা করে।

ভুক্তভোগীরা আরো জানান, ডাকাতরা চলে যাওয়ার সময় ওই চারটি পরিবারের সোহাগ সরদার (২৫), ভোলা মিয়া (৩০), নাজমুল বেপারী (৫০), শহিদুল্লাহসহ আটজনকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে।

এ বিষয়ে সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহসিনুল কাদির বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ যাচ্ছে। সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।