সালথায় স্বামীর সাথে অভিমান করে গৃহবধূ আত্মহত্যার অভিযোগ 

প্রকাশিত
সালথা সংবাদদাতাঃ
ফরিদপুরের সালথায় জেয়াসমিন বেগম (২৬) নামের এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল দিবাগত রাতে
উপজেলার ভাওয়াল ইউনিয়নের ইউসুফদিয়ার ইজারাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। জেয়াসমিন ঐ গ্রামের সাইদুল মাতুব্বরের স্ত্রী।
পরিবার ও স্বামীর দাবি, গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে রান্নাঘর তোলা নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটি হলে পরে স্ত্রী জেসমিন অভিমান করে রাতে না খেয়েই ঘুমিয়ে পরে। এর পর ভোর ৪টার দিকে হঠাৎ স্বামীর ঘুম ভেঙ্গে গেলে তিনি দেখেন স্ত্রী নিজ ঘরেত আড়ার সাথে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় ঝুলছেন। এ সময় তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এলে
তাকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান।
প্রসঙ্গত গত ৬ বছর আগে সদরপুর উপজেলার কেস্টপুর নয়ারকান্দী গ্রাম এলাকার আলেফ কারীগরের মেয়ে জেসমিন বেগমের সঙ্গে সালথা উপজেলাধীন ভাওয়াল ইউনিয়নের ইউসুফদিয়া ইজারাপাড়া গ্রামের মৃত বাচ্চু মাতুব্বরের ছেলে সাইদুলের সাথে প্রেমের সম্পর্কের জেরে বিয়ে হয়। সাইদুল ও জেসমিনের দাম্পত্য জীবনে ৪ বছরের একটি ছেলে সন্তান রয়েছে।
সালথা থানার ওসি (তদন্ত) সুব্রত গোলদার জানান, মৃত্যুর সঠিক কারণ নির্ণয়ের জন্য লাশ ময়নাতদন্তের নিমিত্তে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট প্রাপ্তি সাপেক্ষে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।