স্বামী ছুঁতে ও পারলেন না ৩০ সেকেন্ডে চলে গেলেন স্ত্রী

প্রকাশিত

নিজস্ব প্রতিনিধি:  কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলায় চিৎকার দিয়ে স্বামীর চোখের সামনে মারা গেলেন স্ত্রী। দৌড়ে গিয়েও স্ত্রীকে বাঁচাতে পারলেন না স্বামী।

বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে পৌর শহরের ভৈরব দক্ষিণ পাড়ার আবদুল লতিফ রোডে এ ঘটনা ঘটে। মৃত স্ত্রীর নাম জাহানারা বেগম (৪২)। তার স্বামীর নাম শাহাদাৎ হোসেন খান। ভৈরব শহরে অবস্থিত বেবি বেকারির মালিক শাহাদাৎ হোসেন। ৪ সন্তানের জননী জাহানারা বেগম স্বামীর চোখের সামনে মারা গেলেও ছুঁতে পারলেন না স্বামী।

মৃত গৃহবধূর স্বামী শাহাদাৎ হোসেন বলেন, সকালে ভেজা কাপড় বাড়ির উঠানে তারে টাঙানোর সময় জাহানারা হঠাৎ চিৎকার দেয়। এ সময় আমি তার কাছেই ছিলাম। ঘটনাটি বুঝতে পেরে দৌড়ে গিয়ে বাসার বিদ্যুৎ সংযোগ কেটে দিই। কিন্তু মাত্র ৩০ সেকন্ডের মধ্যে মারা যায় জাহানারা। এত কাছে থেকেও তাকে ছুঁতে পারিনি আমি। বিদ্যুৎস্পৃষ্টে মুহূর্তে চলে গেল তার প্রাণ।

ভৈরব থানা পুলিশের ওসি মো. মোখলেছুর রহমান বলেন, খবর পাওয়ার পরই ঘটনাস্থালে পুলিশ পাঠানো হয়। স্বামী শাহাদাৎ হোসেনের কোনো অভিযোগ না থাকায় বিনা ময়নাতদন্তে মরদেহ দাফনের অনুমতি দেয়া হয়েছে।