হোয়াইট হাউজে সিএনএন সাংবাদিক নিষিদ্ধ

প্রকাশিত

ডেস্ক : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে বেয়াড়া প্রশ্ন করার জন্য টিভি নেটওয়ার্ক সিএনএন-এর একজন সাংবাদিককে হোয়াইট হাউজের এক অনুষ্ঠানে ঢুকতে দেয়া হয়নি।

কেইটলান কলিন্স বলছেন, তিনি শুধু মি. ট্রাম্পকে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এবং মি. ট্রাম্পের সাবেক আইনজীবী সম্পর্কে কিছু প্রশ্ন করেছিলেন।

তার জেরেই তাকে ঐ অনুষ্ঠানে যেতে দেয়া হয়নি। খবর বিবিসির

তবে হোয়াইট হাউস বলছে, এই সাংবাদিক এমন কিছু প্রশ্ন করেছিলেন যা ‘যথোপযুক্ত’ ছিল না।

হোয়াইট হাউজের প্রেস সচিব সারাহ স্যান্ডার্স বলছেন, কেইটলান কলিন্সকে বেরিয়ে যেতে বলা হলেও তিনি তা করতে অস্বীকৃতি জানান এবং চিৎকার করতে থাকেন।

সিএনএন-এর সাথে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সম্পর্ক অনেক দিন ধরেই তিক্ত।

তিনি প্রায়ই সিএনএনকে ‘ফেক নিউজ’ বলে আক্রমণ করেন এবং সিএনএন-এর সাংবাদিকদের কাছ থেকে প্রশ্ন গ্রহণ করেন না।

বুধবার এই ঘটনাটি ঘটে হোয়াইট হাউজে ইউরোপীয় কমিশনের প্রধান জাঁ ক্লদ ইউঙ্কারের সাথে মি. ট্রাম্পের সাক্ষাতের সময়।

মিজ কলিন্স হোয়াইট হাউজের পুল রিপোর্টার হিসেবে সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

কিন্তু কেইটলান কলিন্স সত্যি চেঁচামেচি করেছিলেন কি না, সে সম্পর্কে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন।

তিনি বলছেন, কেইটলান কলিন্সএর ব্যাপারে হোয়াইট হাউজ অসত্য বলছে।

কেইটলান কলিন্স জানান, তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্টকে জিজ্ঞেস করেছিলেন ভ্লাদিমির পুতিন কেন তার মার্কিন সফর স্থগিত করেছেন এবং মি. ট্রাম্পের আইনজীবীর ফাঁস হওয়া একটি টেলিফোন আলাপ সম্পর্কে প্রেসিডেন্ট কী মনে করেন?

মি. ট্রাম্প এসব প্রশ্নের কোন জবাব দেননি।

এরপরই ঐ দুই নেতার সংবাদ সম্মেলনে সিএনএন সংবাদদাতাকে যেতে দেয়া হয়নি।