১০ টাকা কেজি দরের ৪শ’ কেজি চাল উদ্ধার বাগেরহাটে

প্রকাশিত

১০ টাকা কেজি দরের ৪শ’ কেজি চাল উদ্ধার বাগেরহাটে

মোরেলগঞ্জ প্রতিনিধি:

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলায় প্রধানমন্ত্রীর খাদ্যবান্ধন কর্মসূচির ১০ টাকা কেজি দরের ৪শ’ কেজি চাল উদ্ধার করেছে পুলিশ।বুধবার দিবাগত রাত ২টার দিকে মোরেলগঞ্জ থানা পুলিশ উপজেলার খাউলিয়া ইউনিয়নের ধানসাগর গ্রামের বাশার মুন্সির বাড়ি থেকে ৮ বস্তা চাল উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত প্রতি বস্তায় রয়েছে প্রায় ৫০ কেজি করে চাল।

এ সম্পর্কে বাসার মুন্সি বলেন, বুধবার রাত ১০ টার দিকে ডিলার রহিমের নিকট থেকে প্রতি ৫০ কেজির বস্তা ১৮শ’ টাকা (প্রতি কেজি ৩৬ টাকা) দরে কিনে নিজের গাড়িতে করে বাড়ি নিয়ে যান। ডিলার রহিম নিজেই চাল গাড়িতে তুলে দেন। পরে পুলিশ তার বাড়িতে হানা দিয়ে চাল নিয়ে যায়।

খাউলিয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম ওই ওয়ার্ডের ডিলার হিসেবে কাজ করছেন। তিনি নিজেই বুধবার রাতে পল্লীমঙ্গল বাজার এলাকায় থাকা গুদাম থেকেই ওই চাল গোপনে বিক্রি করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রাশেদুল আলম বলেন, ১০ টাকা কেজি দরের চাল কালোবাজারে বিক্রি করা হয়েছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৮ বস্তা চাল উদ্ধার করেছে। এ বিষয়ে সাধারণ ডায়েরি করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও জেলা খাদ্য কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে।

ডিলার আব্দুর রহিম এ বিষয়ে নিজেকে নির্দোষ দাবি করে বলেন, আমার গুদাম থেকে কোন চাল অবৈধ ভাবে কারও কাছে বিক্রি করা হয়নি।

বাগেরহাট জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক একেএম শহিদুল হক এ সম্পর্কে বলেন, বিষয়টি আমি নিজেই সরেজমিনে গিয়ে খতিয়ে দেখে অভিযুক্ত ডিলারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।