২০১৭-তে নন্দিত ও নিন্দিত বলিউড নায়করা

প্রকাশিত

ভারতের সীমানা পেরিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও এখন সুপরিচিত বলিউডের ছবি। দেশে-বিদেশে দিন দিন বেড়েই চলেছে হিন্দি চলচ্চিত্রের ব্যবসা। হিন্দি চলচ্চিত্রের ইতিহাসে অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে ছবির ব্যবসায় নতুন এক দিগন্ত উন্মোচন করেছে বলিউডের একাধিক ছবি। ২০১৭ সালে বলিউডে অনেক ছবি যোগ হয়েছে। এ ছবিগুলোয় অনেক তারকা অভিনেতা কাজ করেছেন। যাদের অনেকে প্রশংসায় ভেসেছেন, আবার অনেকে নিন্দার পাত্র হয়েছেন।

দেখে নিন, বলিউডের হিট বা ফ্লপ হওয়া সেসব তারকাদের।
সালমান খান
বছরের শুরুটা খুব একটা সুখকর ছিল না সালমান খানের। টিউবলাইট ছবি মুক্তি দিয়ে বছর শুরু হয় সালমান খানের। ভক্তদের প্রত্যাশা মেটাতে পারেনি সে ছবি। ডিস্ট্রিবিউটরদের লোকসান গুনতে হয়েছে ছবিটির জন্য। কিন্তু শেষটা বেশ ভালো বলা যায় সালমান খানের। এক থা টাইগারের সিক্যুয়েল ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ মুক্তির আগেই হিট। ছবির গান থেকে শুরু করে ট্রেলার- সবকিছুতে দর্শকের আগ্রহের কমতি ছিল না। সব মিলিয়ে ২০১৭ সালে সালমান খানকে সফল নায়কই বলা যায়।

শাহরুখ খান
একই বক্তব্য শাহরুখ খানের বেলায়। তারা সবসময় হিট। এ বছর জানুয়ারিতে মুক্তি পেয়েছিল রইস। এটি ভালোই ব্যবসা করেছিল। অনেক আলোচনাও হয়েছিল তার চরিত্র নিয়ে, ছবির গল্প নিয়ে। কিন্তু আগস্টে মুক্তি পাওয়া ‘জাব হ্যারি মেট সেজাল’ খুব বেশি আলোচনায় ছিল না। শাহরুখ আর্থিকভাবে লাভবান হলেও নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি।

আমির খান
অন্য খানদের মতো আমির খান খুব বেশি সিনেমা করেন না। বছরে সর্বোচ্চ একটা। সে ধারাবাহিকতায় ২০১৭ সালে আমিরের হিট ছবি ‘সিক্রেট সুপারস্টার’। যদিও ছবিতে আমিরকে খুব বেশি দেখা যায়নি; কিন্তু একজন সংগীত পরিচালকের চরিত্রে অসাধারণ কাজ করেছেন আমির খান। ছবিটি হিট করেছে। বলা যায়, ২০১৭ সাল আমির খানের বেশ ভালোই কেটেছে। সারা বছর ব্যস্ত ছিলেন ‘থাগস অব হিন্দুস্তান’ এর শুটিং নিয়ে।

সাইফ আলি খান
২০১৭ সাল সাইফ আলি খানের জন্য অশুভই বলা যায়। মুক্তি পাওয়া দুই ছবির দুটিই লোকসানের ভার বহন করেছে। রঙ্গুন ও শেফ দুটি ছবিই সাইফেকে ২০১৭ সালে ফ্লপের সারিতে ফেলতে যথেষ্ট।

ঋত্বিক রোশন
এ বছরের শুরুর দিকে মুক্তি পায় ঋত্বিক রোশনের কাবিল। ছবিটির প্রযোজক ছিলেন ঋত্বিকের বাবা রাকেশ রোশন। ছবিটি প্রায় ১ দশমিক ৭ বিলিয়ন রুপি আয় করেছে। কিন্তু ডিস্ট্রিবিউটরদের লোকসান গুনতে হয়েছিল। ছবিতে নায়ক হিসেবে ঋত্বিক হিট।

অক্ষয় কুমার
বলা যায় ২০১৬ সাল থেকে অক্ষয়ের সুসময় চলছে। গত বছর মুক্তি পাওয়া তিন ছবি এয়ার লিফট, রুস্তম, হাউজফুল থ্রি ব্লকবাস্টার হিট হয়েছিল। এ বছর জলি এলএলবি-২ ও টয়লেট এক প্রেম কথা নামের দুটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। দুটি ছবিই ১০০ কোটির বেশি ব্যবসা করেছে।

অজয় দেবগান
শোনা যায় এ বছর অজয় দেবগানের সুপারহিট ছবি ‘গোলমাল অ্যাগেইন’। গোলমাল সিরিজের সিক্যুয়েল এ সিনেমাটি এ বছর অক্টোবরের ২০ তারিখ মুক্তি পায়। ছবিটি প্রায় ৩০০ কোটির উপরে ব্যবসা করেছে। সুতরাং আরেকটি ভালো বছর পার করতে যাচ্ছেন অজয় দেবগান।

বরুন ধাওয়ান
এবছর অনেকগুলো সুপারহিট ছবি উপহার দিয়েছেন বরুন ধাওয়ান। তার অভিনীত বদ্রিনাথ কি দুলহানিয়া ১০০ কোটিরও বেশি ব্যবসা করেছে। এছাড়া জুড়য়া-২ বরুন ধাওয়ানের ক্যারিয়ারের সেরা ছবি। এটিও প্রায় ২৫০ কোটি রুপির ব্যবসা করেছে। সে হিসেবে ২০১৭ সাল বরুনের সফলতার বছর।

সিদ্ধার্থ মালহোত্রা
বরুনের সমসাময়িক নায়ক সিদ্ধার্থ বরুনের মতো অতটা লাকি নন। ২০১৭ সালে সিদ্ধার্থের দুইটি ছবি মুক্তি পায়। তার ছবি ইত্তেফাক মোটামুটি ভালো চললেও জেন্টেলম্যান খুব বাজেভাবে ফ্লপ হয়েছে।

রনবীর কাপুর
২০১৭ সাল রনবীর কাপুরের খুব বাজে কেটেছে বলা চলে। এ বছর তার জাজ্ঞা জাসুস নামে একটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। ছবিটি মোটেও ব্যবসাসফল হয়নি। অনুরাগ বসু পরিচালিত ছবিটি বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়েছে।

শহীদ কাপুর
তার অভিনীত ছবি রঙ্গুন মুক্তি পেয়েছে এ বছর। যেটি বক্স অফিসে মুখথুবড়ে পড়েছে। সে হিসেবে ২০১৭ সাল শহীদের জন্য অমঙ্গলজনক ছিল।

অর্জুন কাপুর
এ বছর দুটি ছবি মুক্তি পেয়েছে অর্জুন কাপুরের। তার ছবি মুবারকা বেশ হিট করেছে, আবার হাফ গার্লফ্রেন্ড ফ্লপ করেছে। বলা যায়, ২০১৭ ভালো-মন্দের মধ্য দিয়ে কেটেছে অর্জুনের।

টাইগার শ্রফ
টাইগার শ্রফের একটি ছবি মুক্তি পেয়েছে এ বছর। মুন্না মাইকেল নামের এ ছবিটি প্রত্যাশা অনুযায়ী ব্যবসা করতে পারেনি।

ইরফান খান
বলিউডের অন্যতম শক্তিশালী এ অভিনেতার এ বছর দুইটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। বিশেষ করে তার অভিনীত হিন্দি মিডিয়াম ছবিটি নিয়ে দর্শকের যথেষ্ট প্রত্যাশা থাকলেও তা পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছে ছবিটি।

নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি
২০১৭ সালে অনেকগুলো ছবি মুক্তি পেয়েছে নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর। এর মধ্যে কিছু ছবি হিট হয়েছে, আবার কিছু ফ্লপ হয়েছে। বিশেষ করে তার অভিনীত রইস, মম হিট করেছে; আবার বাবু মশাই বন্দুকবাজ ও মুন্না মাইকেল ফ্লপ করেছে।

আয়ুষ্মান খুরানা
এ বছর তার মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি তিনটি। বাড়িলি কি বারফি ও শুভ মঙ্গল সাবধান হিট হয়েছে আর মেরি পেয়ারি বিন্দু ফ্লপ করেছে।

রাজকুমার রাও
২০১৭ সাল রাজকুমার রাওয়ের ক্যারিয়ারের সেরা বছর। তার পাঁচটি ছবি মুক্তি পেয়েছে এ বছর। কিছু ছবি হিট হয়েছে, আবার কিছু ফ্লপ হয়েছে। কিন্তু যেগুলো হিট হয়েছে, সেগুলো খুব ভালোভাবেই প্রশংসা কুড়িয়েছে। এ বছর সিনেমার জন্য বেশকিছু পুরস্কারও এরই মধ্যে বগলদাবা করেছেন তিনি।    সংগৃহীত

Be the first to write a comment.

Leave a Reply