২০১৮ সাল খারাপ যাবে: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নির্বাচনের আগে দেশে সংখ্যালঘু নির্যাতন বাড়ে। জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে সব সময় সঙ্কট সৃষ্টির অংশ হিসেবে সংখ্যালঘু নির্যাতন বেড়ে যায়।

সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) বিকালে রাজধানীর মিরপুরের সেনপাড়া পর্বতার ব্যাপিস্ট মিশন আয়োজিত আন্তঃমাণ্ডলিক বড়দিন উদযাপন অনুষ্ঠিত উপস্থিত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, জাতীয় নির্বাচনে হেরে যাওয়ার আশংকায় একটি গোষ্ঠি সংখ্যালঘু ও তাদের উপাসনালয়ের ওপর হামলা চালাতে পারে। ২০১৮ সাল খারাপ যাবে। সাম্প্রদায়িক হামলা হতে পারে। আমাদের এ ব্যাপারে সচেতন থাকতে হবে। এ সকল অপচেষ্টাকে রুখে দিতে সকল সাম্প্রদায়ের মধ্যে সম্প্রীতির বন্ধন অটুট রাখতে কাজ করতে হবে।

আলোচনায় ছিলো সিটি করপোরেশন নির্বাচন প্রসঙ্গও। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে আনিসুল হক ছিলেন আমাদের সারপ্রাইজ প্রার্থী। আমরা যেনো আনিসুল হকের মতোই আবারও একজন প্রার্থী দিতে পারি।

এবার দলীয় প্রতীকে ঢাকা উত্তর সিটি করর্পোরেশনের নির্বাচন হবে। এ জন্য দলীয় মনোনয়ন বোর্ডে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার জরিপে যোগ্য ব্যক্তিকে মনোনয়ন দেবে আওয়ামী লীগ।

রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়েও কথা বলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, রংপুর সিটি করপোরেশনে অবাধ ও সুষ্ঠ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সরকারে পক্ষ থেকে প্রসাশনকে আমাদের অবস্থান জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। আমাদের নেত্রীও চান যেনো নির্বাচন সুষ্ঠ হয়।

ওবায়দুল কাদের এসময় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, দেশ যদি কারাগারে পরিণত হয় তা হলে বিএনপির বড় বড় নেতারা বিভিন্ন মামলায় জামিন নিয়ে জেল থেকে কিভাবে বের হলো।

বিএনপির বড় বড় নেতা নিজেদের চিন্তা করে ছোট নেতাদের চিন্তা করে না। এ জন্য ছোট নেতাকর্মীরা জেলে থাকলেও তাদের কোন জামিনের ব্যবস্থা করে না।

Be the first to write a comment.

Leave a Reply