২২ ভারতীয়সহ ছিনতাইকৃত তেলবাহী জাহাজ মুক্ত

প্রকাশিত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পশ্চিম আফ্রিকার উপকূল থেকে ২২ ভারতীয়সহ ছিনতাইকৃত তেলবাহী জাহাজটি মঙ্গলবার মুক্ত করে দিয়েছে জলদস্যুরা।

পশ্চিম আফ্রিকার গিনি উপসাগরের বেনিন উপকূল থেকে ১ ফেব্রুয়ারি পানামার পতাকাবাহী ‘মেরিন এক্সপ্রেস’ নামে তেলবাহী ট্যাংকারটি নিঁখোজ হওয়ার খবর আসে। জাপানি কোম্পানি ওসান ট্রানজিট ক্যারিয়ার জাহাজটির মালিক। হংকং-ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান অ্যাঙলো-ইস্টার্ন শিপিংয়ের মাধ্যমে ২২ ভারতীয় নাবিক তেলবাহী ট্যাংকারে নিয়োগ পান।

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ বুধবার এক টুইটে জাহাজ মুক্ত হওয়ার খবর দিয়ে লিখেছেন, ‘আমি এই তথ্য দিতে পেরে আনন্দিত যে, ভারতের ২২ নাগরিকসহ বাণিজ্যিক জাহাজ মেরিন এক্সপ্রেস মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে।’

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, তেলবাহী ট্যাংকারটি ১৩ হাজার ৫০০ টন গ্যাসোলিন বহন করছিল। অ্যাঙলো-ইস্টান বলেছে, ‘সব নাবিক নিরাপদ ও সুস্থ আছে বলে জানা গেছে এবং কার্গোগুলো জাহাজেই আছে।’

বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, ‘গিনি উপসাগর জলদস্যুদের নিশানায় পরিণত হয়েছে। তারা কার্গো ছিনিয়ে নেয় এবং মুক্তিপণ দাবি করে। তা ছাড়া জলদস্যুতা এখন বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে।’

জানুয়ারি মাসে বেনিন উপকূল থেকে ‘এমটি ব্যারেট’ নামে একটি জাহাজ নিখোঁজ হওয়ার এক মাসেরও কম সময়ে মেরিন এক্সপ্রেস ছিনতাই হয়। প্রথমে নিখোঁজ হওয়ার তথ্য এলেও পরে জানা যায়, জাহাজ দুটি জলদস্যুরা ছিনতাই করেছে। এমটি ব্যারেটেও ২২ ভারতীয় ছিলেন, যাদের মুক্তিপণ দিয়ে মুক্ত করা হয়।

তথ্যসূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইন