৪র্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলায় আরইবি’র সর্বোচ্চ সাফল্য অর্জন

প্রকাশিত

শেখ রাজীব হাসান আকাশ,চ্যানেল সিক্সঃ বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড এবারের ৪র্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলায় সর্বোচ্চ সাফল্য অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে গত ০৪ অক্টোবর-২০১৮খ্রিঃ ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ মেলা উদ্বোধন করেন। এ বারের মেলার প্রতিপাদ্য ছিল “উন্নয়নের অভিযাত্রায়, অদম্য বাংলাদেশ।” দেশব্যাপী জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে এবারের ৪র্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলা অনুষ্ঠিত হয়। এ মেলায় সরকারী/বেসরকারী প্রায় সকল প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করে। বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের আওতাধীন ৮০টি পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে মোট ৪২১টি দৃষ্টি নন্দন স্টল স্থাপন করে। এর মধ্যে ১৭৩টি প্রথম পুরস্কার, ৯০টি দ্বিতীয় পুরস্কার, ৫১টি তৃতীয় পুরস্কারসহ মোট ৩১৪টি পুরস্কার লাভ করে। মেলায় পুরস্কার প্রাপ্তির শতকরা হার ৭৪.৫%। ঢাকায় কেন্দ্রীয়ভাবে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের মাননীয় চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিন (অবঃ) এর নেতৃত্বে বাপবিবোর্ডের সর্বস্তরের কর্মকর্তা/কর্মচারীগণ শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন। দেশের ৮০টি পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির প্রতিটি স্টলে বিদ্যুৎ প্রত্যাশী গ্রাহকদের আবেদন অন লাইনে গ্রহণ করা হয় এবং স্বল্প সময়ের মধ্যে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা হয়। দেশব্যাপী অনুষ্ঠিত এ উন্নয়ন মেলায় ৪২১টি স্টলে ব্যাপক দর্শনার্থীর আগমন ঘটে এবং তারা পল্লী বিদ্যুতায়ন কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত হন। দর্শনাথীদের নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সেবা নিশ্চিতকরণ এবং বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের লক্ষ্যে করণীয় বিভিন্ন দিক সম্পর্কে আলোকপাত করা হয়। এছাড়া তাৎক্ষনিক বিদ্যুৎ সেবা পেয়ে গ্রাহকগণ বাপবিবোর্ড/পবিসকে ধন্যবাদ জানান। এদিকে পল্লী বিদ্যুতায়ন কার্যক্রমকে সম্প্রসারণের লক্ষ্যে বাপবিবোর্ডের মাননীয় চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিন (অবঃ) এর নেতৃত্বে ৮০টি পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মকর্তা/কর্মচারীগণ অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। যে কারণে বিগত ৩০ বছরে ৭৪ লক্ষ গ্রাহক থেকে বর্তমান সরকারের ১০ বছরে এ পর্যন্ত মোট ২ কোটি ৪০ লক্ষ গ্রাহককে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান করা সম্ভব হয়েছে। এছাড়া মাঠ পর্যায়ে দুর্নীতি বন্ধে জিরো টলারেন্সে কাজ করছে সংস্থাটি। সর্বোপরি এবারের ৪র্থ জাতীয় উন্নয়ন মেলায় আরইবি’র অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। উল্লেখ্য, গত ০৬-১০-২০১৮ খ্রিঃ এ মেলার সমাপ্তি ঘটে।