৫০০০ পরিবারের চোখের জল মুছে দিলেন জননেতা ওয়াকিল উদ্দিন

প্রকাশিত

শেখ রাজীব হাসান, বিশেষ প্রতিনিধিঃ মরণঘাতী নভেল করোনা ভাইরাস লণ্ডভণ্ড করে দিয়েছে পুরো বিশ্বকে। বাংলাদেশও করোনার থাবা থেকে মুক্তি পাচ্ছেনা মানুষ। দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হচ্ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। এপর্যন্ত এ থাবায় প্রাণ হারিয়েছে ৭৫ জন এবং আক্রান্ত ছাড়িয়ে গেছে দুই হাজারের কাছে। এমন কঠিন সময়ে সবার উচিত গরীব-অসহায়দের পাশে দাঁড়ানো। ত্রাণের জন্য হাজারো মানুষকে দেখা গেছে রাস্তায় নামতে , কেউ বা বসে থাকে ত্রাণের আশায় সারা রাত, কেউ বা অসহায়ের মত বাসায় বসে নিরবে কাঁদছেন।

ঠিক সে সময় অসহায়দের মুখে হাঁসি ফোটাতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে গরীবদের মাঝে ত্রাণ নিয়ে ছুটে আসলেন ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সাবেক অর্থ সম্পাদক, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ওয়াকিল উদ্দিন ।

তিনি ঘোষণা দিলেন রমজান ঈদ পর্যন্ত গরিব দুস্থ ও হতদরিদ্র ৫০০০ হাজার পরিবারকে খাদ্যসহায়তা দিবেন বলে। এর আগে তিনি ১২০০ পরিবারের মধ্যে চাল-ডালসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছিলেন। গত রোববার ঢাকা-১৭ নির্বাচনী এলাকা গুলশান, বনানী, ভাষানটেক ও ক্যান্টনমেন্ট থানার ৬টি ওয়ার্ডে এসব নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ওয়াকিল উদ্দিন।

এই এলাকার দুস্থ মানুষের মধ্যে পবিত্র রমজান মাস পর্যন্ত এই খাদ্যসামগ্রী বিতরণ অব্যাহত থাকবে বলে বীর মুক্তিযোদ্ধা ওয়াকিল উদ্দিন বলেন, বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পরা করোনা ভাইরাসে প্রাণ হারাচ্ছে হাজার হাজার মানুষ। করোনা বর্তমান বিশ্বে একটি আতঙ্কের নাম। তবে এমন নয় যে মোকাবেলা করা যাবে না। গোটা মানবজাতি যদি একত্রিত হয়ে এর বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে এবং নিয়ম কানুন মেনে চলে তাহলে অবশ্যই এ মহামারী মোকাবেলা সম্ভব।

তিনি আরও বলেন, সমাজের বিত্তবানদের উচিত গরিব, দুস্থ ও হতদরিদ্রদের ত্রাণ সামগ্রী দিয়ে পাশে দাঁড়ানো।

এদিকে ত্রাণ পেয়ে ভাষারটেক এলাকার ভ্যান চালক মজিবর মুখে হাসি ফুটেতে দেখা গেছে। ত্রাণ পেয়ে মজিবর বলেন আমি অনেক খুশি ওয়াকিল উদ্দিন স্যারের জন্য দোয়া করি আল্লাহ যেন উনাকে নেক হায়াত দান করেন।

শুধু মজিবরেই নয় এমনি খুশি শত শত অসহায় মানুষ তেমনী একজন বনানীর চা বিক্রেতা জসিম। জসিম বলেন করোনার কারণে চা বিক্রি করতে পারি না, পরিবার নিয়ে চিন্তিত, ওয়াকিল উদ্দিন স্যারের মত নেতারা আছেন বলে আমরা খাবার পাই এবং বেঁচে থাকার স্বপ্ন দেখি।

অনেকের দাবী ওয়াকিল উদ্দিন স্যার যেমন সবসময় অসহায় গরীবদের বিপদে পাশে দাঁড়ায় তেমনি সবার উচিৎ স্যারের মত সব বিত্তবান যেন আমাদের মত অসহায়দের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়।