৮ হাজার টাকা মুজুরিতে অসন্তোষের কিছু নেই: শ্রম প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত

দেশে তৈরি পোশাক খাতের শ্রমিকদের জন্য সর্বনিম্ন মজুরি ৮ হাজার টাকা নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার।

এ নিয়ে নানা মহলে সমালোচনা থাকলেও তা আমলে নিচ্ছে না শ্রম মন্ত্রণালয়। শ্রম প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু বলছেন, এই মজুরি নিয়ে অসন্তোষের কোনো ‘সুযোগ’ নেই।

রবিবার সচিবালয়ে শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশন তহবিলে বিএসআরএম-এর লভ্যাংশ হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

শ্রম প্রতিমন্ত্রী বলেন, সাধারণ শ্রমিকদের সমর্থন আমাদের সঙ্গে আছে। তাই কোনও সমস্যা হবে না। আর কোনও ধরনের অসন্তোষ যাতে না হয় সেজন্যই প্রধানমন্ত্রীর কমিটমেন্ট অনুযায়ী মজুরি ঘোষণা করেছি।

তবে কিছু সংগঠনের ‘উদ্দেশ্য ভালো নয়’ বলে মন্তব্য করেন তিনি। প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা বিষয়টি নিয়ে খুবই সতর্ক। উদ্দেশ্যমূলকভাবে যদি কিছু করতে চায় তবে তারা কিছু করতে পারবে না।

বৃহস্পতিবার গার্মেন্টস শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ঘোষণা করে সরকার। সর্বনিম্ন ৮ হাজার টাকা রেখে এই মজুরি ঘোষণা করা হয়। যা আগামী ডিসেম্বর থেকে কার্যকর হওয়ার কথা রয়েছে।

বর্তমানে পোশাক শ্রমিকরা ২০১৩ সালে ঘোষিত ন্যূনতম মজুরি ৫ হাজার ৩০০ টাকা পেয়ে আসছেন।

এ দফায় তা ১৬ হাজার টাকা করার দাবি জানিয়ে আসছিল বিভিন্ন সংগঠন।

চুন্নু বলেন, সর্বনিম্ন মজুরি ঘোষণার আগে আমি শ্রমিক ফেডারেশন, ইউনিয়নের অনেকের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা বলেছেন, সর্বনিম্ন মজুরি ৮ হাজার টাকা করা হলে হয়তো সবাই সেটা গ্রহণ করবে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ভালো কাজ করলে কেউ না কেউ বিরোধী তো থাকেই। এক লাখ টাকা বেতন দিলেও কেউ কেউ বলবেন এতে হয় না, আরও লাগবে।

তিনি বলেন, কে মানবেন, কে মানবেন না সেটা তাদের বিষয়। তবে এটা মিনিমাম, এর নিচে বেতন দেয়া যাবে না।