ফেনীর ছাগলনাইয়ায় প্রেমের প্রলোভনে যুবতীকে ধর্ষণের চেষ্টা

প্রকাশিত

ফেনী জেলা প্রতিনিধিঃফেনীর ছাগলনাইয়ায় ১৮ বছর বয়সী এক যুবতীকে প্রেমের প্রলোভনে পেলে ধর্ষণের চেষ্টা চালানোর অভিযোগ উঠেছে, ছাগলনাইয়া উপজেলাধীন ৫ নং মহামায়া ইউনিয়নের,পূর্বদেবপুর গ্রামের পাশ্ববর্তী বাড়ীর মৃতঃআবু আহম্মদের পুত্র,বখাটে যুবক ওসমাগণী (২৫) এর বিরুদ্ধে।ঘটনার পর থেকেই ধর্ষণ চেষ্টাকারী ওই বখাটে পলাতক রয়েছে।ঘটনার বিষয় থানায় অভিযোগ দায়েরের পর থেকেই বখাটে ওসমানগণীকে গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রেখেছে পুলিশ।এই ঘটনায় গত ১২ নভেম্বর রাতে যুবতীটির পরিবারের পক্ষথেকে,ছাগলনাইয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হলে।অভিযোগের প্রেক্ষিতে থানা ওই রাতেই বখাটে ওসমানগণীর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা রেকর্ড করেন। বখাটে যুবক ওসমানগণী কর্তৃক ধর্ষণ চেষ্টার শিকার ওই যুবতীর,বুধবার বিকেলে ফেনীর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম দ্রুব জ্যোতি পালের আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়েছে।

পুলিশ ও পারিবারিক সুত্র জানায়,বখাটে যুবক ওসমানগণী যুবতীদের পাশ্ববর্তী বাড়ীর হওয়ায় তারা একে অপরের পরিচিত ছিল।গত বেশ কিছুদিন থেকে বখাটে ওসমানগণী ওই যুবতীর সাথে প্রেমের অভিনয় শুরু করেন।সে নানা অজুহাতে প্রায় সময় ওই যুবতীদের বাড়ীতে যাওয়া আসা করতো এবং কি যুবতীর সাথে কথা বলার চেষ্টা করতো।গত রোববার রাত আনুমানিক ৮ টার দিকে ওই যুবক ওসমানগণী যুবতীর বাড়ীতে যায়।এসময় যুবতীটির মা বাড়ীতে ছিলেন না।এ সুযোগে বখাটে ওসমান ছলনার আশ্রয় নিয়ে,যুবতীটিকে পটিয়ে কথা আছে বলে বসতঘরের পেছনে নির্জন স্থানে নিয়ে যায়।সেখানে নিয়ে ওসমান যুবতীকে বিভিন্ন লোভ লালসা দেখিয়ে বিয়ের প্রলোভনে পেলে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করেন। যুবতী এতে রাজী না হলে একপর্যায় উভয়ের মধ্যে দস্তাধস্তি শুরু হয়।এসময় ওসমানের নখের আঁছড়ে যুবতীর শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্তাক্ত জখম হয়।এই সময় যুবতীর মা বাড়ী এসে ঘরের বেতর মেয়েকে না দেখে,মেয়ের নাম ধরে ডাকাডাকি করতে থাকলে,ওসমান যুবতীটির মায়ের উপস্থিতি টের পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে দ্রুত পালিয়ে যায়।যুবতীর শারীরিক অবস্থা দেখে তার পরিবারের লোকজন তাৎক্ষণিক তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে চিকিৎসা করান।এ ঘটনাটি বখাটে ওসমানের বাড়ীতে জানানো হলে,ওসমানের পরিবার উল্টো মা মেয়ের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে,এই ঘটনার বিষয় কাউকে জানালে বা থানায় গিয়ে মামলা দিলে মা মেয়ে উভয়কে জানে মেরে পেলার হুমকি প্রদান করেন বলে,এই ঘটনার বিষয় থানায় দায়ের করা অভিযোগে উল্লেখ করেন বাদী।

ছাগলনাইয়া থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) মেজবাহ্ উদ্দিন আহমেদ ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করেন।তিনি আরো জানান,মামলায় অভিযুক্ত পলাতক থাকা ওই বখাটে যুবকটিকে গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।