লক্ষ্মীপুরে অভিযানে পেঁয়াজের গুদাম সিলগালা, ৪২ বস্তা জব্দ,

প্রকাশিত

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি.
লক্ষ্মীপুর শহরের গেঞ্জিহাটা মাইনউদ্দিন ষ্টোর এর গুদাম থেকে ৪২ বস্তা পেঁয়াজ জব্দ করেছে আইন শৃংখলা বাহিনী। এসময় অবৈধভাবে পেঁয়াজ গুদামজাতের অভিযোগে মাইন উদ্দিন ষ্টোরের গুদাম ও প্রতিষ্ঠান সীলগালা করা হয়। তবে প্রতিষ্ঠানটির মালিক আইনশৃংখলা বাহিনীর উপস্থিতি টের পেয়ে দোকান রেখে পালিয়ে যায়। শনিবার রাত ৮টার দিকে শহরে গেঞ্জিহাটা সড়কে এ অভিযান চালানো হয়।
জানা যায়, জাতীয় গোয়েন্দা নিরাপত্তা সংস্থা (এনএসআই) গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আইন শৃংখলা বাহিনী নিয়ে গেঞ্জিহাটা মাইন উদ্দিন ষ্টোরের গুদামে তল্লাশি চালায়।
এসময় গুদামে অবৈধভাবে রাখা ৪২ বস্তা পেঁয়াজ জব্দ করে তাঁরা। একপর্যায়ে খবর পেয়ে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে মাইনউদ্দিন ষ্টোরের গুদাম ও প্রতিষ্ঠানটি সীলগালা করে দেয়।
এদিকে পেঁয়াজের মূল্য ২শ’ ২০টাকা রাখার অভিযোগে শহরের কার্তিক ষ্টোর নামের আরেক প্রতিষ্ঠানকে ১০ হাজার টাকা এবং মূল্য তালিকা না থাকায় অন্য প্রতিষ্ঠানকে ১ হাজার টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমান আদালত।
ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শফিকুর রিদোয়ান আরমান শাকিল জানান, পেঁয়াজ গুদামজাত করার অভিযোগে একটি গুদাম থেকে ৪২ বস্তা পেঁয়াজ জব্দ করা হয়। এসময় ওই গুদাম এবং প্রতিষ্ঠানটি সীলগালা করা হয়েছে।
এদিকে বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করায় একটি প্রতিষ্ঠানের ১০ হাজার ও মূল্য তালিকা না থাকায় অন্য প্রতিষ্ঠােনকে ১ হাজার টাকা জরিমান করা হয়। দাম ঠিক রাখতে বাজারে মনিটরিং ও অভিযান অব্যাহত রাখার কথা বলছেন স্বানীয় প্রশাসন। যদি কেউ বাজারে পেঁয়াজের ঘাটতি দেখিয়ে কারসাজি করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার হুঁশিয়ারী দেন স্থানীয় প্রশাসন।