টেকনাফে ৮ লাখ ১০ হাজার পিস ইয়াবাসহ আটক ৪

প্রকাশিত

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি-কক্সবাজারের টেকনাফে র‍্যাব-৭ এর বিশেষ অভিযানে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ৪ মাদক কারবারিকে আটক করা হয়েছে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৮ লাখ ১০ হাজার পিস ইয়াবা, ছয়টি অস্ত্র ও ৭০ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

শুক্রবার ভোররাতে উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের রঙ্গীখালী এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- উপজেলার হ্নীলা রঙ্গিখালী এলাকার ইয়ার মোহাম্মদের ছেলে নুর হাফেজ, একই এলাকার দলিলুর রহমানের ছেলে ছৈয়দ আলম প্রকাশ কালু, ছৈয়দ হোসেনের ছেলে ছৈয়দ নুর, সব্বির আহমদের ছেলে মোহাম্মদ সোহেল। তারা সবাই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত মাদক কারবারি।
র‍্যাব-৭ চট্টগ্রামের অপারেশন অফিসার এএসপি মাশেকুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, দীর্ঘদিন ধরে তাদের কার্যক্রমের ওপর নজর রাখা হচ্ছিল। শুক্রবার ভোররাতে তাদের ওই এলাকা থেকে এসব অস্ত্র ও ইয়াবাসহ আটক করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে পরবর্তীতে আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

অভিযানে সরাসরি অংশ নেন র‌্যাব-৭ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মশিউর রহমান জুয়েল। তিনি জানান, ‘গ্রেফতার চার জনের মধ্যে নুর হাফেজ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবার গডফাদার ও মাদক কারবারি। নুর হাফেজ রোহিঙ্গা নাগরিক আবদুল হাকিম ডাকাতের সেকেন্ড ইন কমান্ড। আবদুল হাকিম ডাকাত নুর হাফেজের মাধ্যমে বাংলাদেশে ইয়াবা ব্যবসা করে আসছে। নুর হাফেজ দীর্ঘদিন ধরে ইয়াবা কারবার ও সন্ত্রাসী কার্যকলাপের সঙ্গে জড়িত। জব্দ করা ইয়াবাগুলো মিয়ানমার থেকে আজ ভোররাতে নিয়ে আসা হয়েছে। এগুলো রিসিভ করে নিয়ে যাওয়ার পথে তাদের আটক করা হয়েছে। তাদের কাছে দুইটি বিদেশি পিস্তলসহ ছয়টি অস্ত্র ও ৭০ রাউন্ড গুলি পাওয়া গেছে।’

এটি র‌্যাব-৭ এর চলতি বছরের সবচেয়ে বড় অভিযান বলে জানান র‌্যাবের এই কর্মকর্তা