সংরক্ষিত বনে আত্মঘাতী ড্রেজার, জানেন না বনবিভাগ ভোলা নদী থেকে অবৈধ বালু উত্তোলন!

প্রকাশিত

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধিঃ
আত্মঘাতী ড্রেজার দিয়ে সুন্দরবনের ভোলা নদী থেকে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করছেন স্থানীয় কতিপয় অসাধু ব্যাবসায়ী ।
বাগেরহাট জেলার শরণখোলা উপজেলার সাউথখালী ইউনিয়নের সুন্দরবন সংলগ্ন সোনাতলা এলাকায় গত ২/৩ দিন ধরে ড্রেজার ব্যবসায়ী এমদাদ ঘরামী ও খলিল বয়াতীর মালিকানাধীন ২টি আত্মঘাতী ড্রেজারের মাধ্যমে সুন্দরবনের (সংরক্ষিত বনের) ভোলা নদী থেকে দেদারসে বালু উত্তোলন করে ওই এলাকার বিভিন্ন বসত বাড়ী ভরাটের কাজ চালাচ্ছেন। সোনাতলা গ্রামের বাসিন্দা আল আমিন মল্লিক বলেন, টাকার বিনিময় বালু ক্রয় করে ড্রেজার ব্যাবসায়ীদের মাধ্যমে তা বাড়ির বিভিন্ন স্থানে দিয়ে উচু করছি কিন্তু বৈধ-অবৈধ কিনা তা জানিনা। ড্রেজার ব্যাবসায়ী খলিল বয়াতি বলেন, সুন্দরবনের অভ্যন্তর থেকে বালু ওঠানোর নিয়ম নেই। এছাড়া কেউ কোন অনুমতি দেননি। তবে, স্থানীয় কিছু বাসিন্দার অনুরোধে সামান্য বালু তোলা হচ্ছে। পুর্ব সুন্দরবনের শরনখোলা রেঞ্জের সহকারী বনসংরক্ষক (এসিএফ) মোঃ জয়নাল আবেদীন বলেন, সংরক্ষিত বনাঞ্চল থেকে বালু তোলার কোন বিধান নেই। কাউকে এ ধরনের অনুমতি দেয়া হয়নি। তবে বিষয়টি আমার জানা নেই খোজঁ খবর নেওয়া হবে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরদার মোস্তফা শাহিন জানান, শীঘ্রই ওই সকল অসাধু ড্রেজার মালিকদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।