কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ডাকাত দলের ১১ সদস্য অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার

প্রকাশিত

কুমিল্লায় বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্রসহ ১১ জন ডাকাতকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এসময় ডাকাতদের ব্যবহৃত একটি মাইক্রোবাস, একটি মোটরসাইকেল ও টাকাসহ বিভিন্ন মালামাল উদ্ধার করা হয়।

সোমবার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম। সংবাদ সম্মেলনে আরও ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত) আবদুল্লাহ আল-মামুন ও শাখাওয়াত হোসেনসহ জেলা পুলিশের পদস্থ কর্মকর্তারা।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, রোববার সন্ধ্যায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাড়কের কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার বাবুর্চি বাজার এলাকায় শাহিন আলম নামে এক ব্যাক্তি চট্টগ্রাম যাওয়ার উদ্দেশ্যে মহাসড়কে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিল।এসময় মোটরসাইকেল যোগে ডাকাত চক্রের ৩ সদস্য ওই ব্যাক্তির উপর হামলা চালায়। গলায় ধারালো অস্ত্র ধরে সাথে থাকা মোবাইল, নগদ টাকা ও ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

এ সময় ওই ব্যাক্তির চিৎকারে প্রথমে স্থানীয়রা ও পরে সড়কের টহলরত হাইওয়ে পুলিশ তাদের ধাওয়া করে ৩ জন ডাকাতকে আটক করে। পরে খবর পেয়ে তাদের উদ্ধারে মাইক্রোবাসযোগে আরও ৮ জন ডাকাত পুলিশের উপর আক্রমন চালানোর চেষ্টা করে। পরে চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশের একাধিক টিম ১ জন মহিলাসহ ওই ৮ জন ডাকাতকে গ্রেফতার করে।