কম ভোটার উপস্থিতির কারণ জানালেন তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত

অনলাইন ডেস্ক-

ভোটার নিয়ে দিনভর হা-পিত্যেসের মধ্যে রাজধানীজুড়ে সদ্য অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের দুই মেয়র প্রার্থীই বড় ব্যবধানে বিজয়ী হয়েছেন। শনিবার অনুষ্ঠিত হওয়া দক্ষিণ সিটি নির্বাচনে ভোট পড়েছে শতকরা ২৯.০০২ ভাগ। উত্তর সিটিতে ভোট পড়েছে শতকরা ২৫.৩ ভাগ। নির্বাচনে এই ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ার তিনটি কারণ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

তিনি বলেছেন, ঢাকায় তিন কারণে ভোটাররা ভোট দিতে যাননি। প্রথমত তিনদিনের টানা ছুটি, দ্বিতীয়ত ইভিএম নিয়ে বিএনপির নেতিবাচক প্রচারণা এবং তৃতীয়ত তারা (বিএনপি) নির্বাচনকে তাদের আন্দোলনের অংশ হিসেবে নেয়।

আজ রবিবার সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে নির্বাচনোত্তর এক সংবাদ সম্মেলনে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এবারের নির্বাচন ঢাকার ইতিহাসে সুন্দর, শান্তিপূর্ণ ও একটি ভালো নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোথাও এবং কোনো কেন্দ্রে গোলযোগ ও বড় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

শনিবার সকাল ৮টা থেকে শুরু হয় ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচন ভোটগ্রহণ এবং শেষ হয় বিকেল ৪টায়। দক্ষিণ সিটি নির্বাচনে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ মেয়র প্রার্থী ফজলে নূর তাপস। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ছিলেন বিএনপির ইশরাক হোসেন। ঢাকা উত্তরে মেয়র পদে জয় পেয়েছেন আতিকুল ইসলাম। তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন বিএনপির তাবিথ আওয়াল।