ভোলায় ৭ম শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশিত

ভোলা প্রতিনিধি-

ভোলার চরসামাইয়া ইউনিয়নে সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল রবিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) রাতে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ কর্মকর্তারা হাসপাতালে যান। এ ঘটনার অভিযুক্ত রায়হান পলাতক রয়েছে।

স্থানীয় ও নির্যাতনের শিকার ওই শিশুর পরিবার সূত্র জানায়, ভোলা সদর উপজেলার চরসামাইয়া ইউনিয়নের সাহেবের চর এলাকার একটি  দাখিল মাদ্রাসার সপ্তম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে ঘরে একা রেখে তার মা ঔষধ আনতে দোকানে যায়। এই সময় পাশের বাড়ির সেলিমের পুত্র রায়হান ঘরে একা পেয়ে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে।

এসময় ওই ছাত্রীর ডাকচিৎকার শুনে এলাকার লোক ছুটে আসলে রায়হান পালিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে গাইনী ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়।

ভোলা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহসিন আল ফারুক জানান, তারা খবর পাওয়ার সাথে সাথে অভিযুক্ত রায়হানকে গ্রেফতারের জন্য চেষ্টা চালাচ্ছেন।

উল্লেখ্য, কয়েক মাস আগে এই চরসামাইয়া এলাকায় ৭ম শ্রেণির অপর এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়েছিল। পরে ওই ধর্ষক ক্রসফায়ারে নিহত হয়।