জগন্নাথপুরে রাস্তা বিহীন সেতু ॥ পড়ে আছে অযত্ন-অবহেলায়

প্রকাশিত

 

জগন্নাথপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি-
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরে বিগত ৪ বছর ধরে রাস্তা বিহীন একটি সেতু পড়ে আছে অযত্ন-অবহেলায়। সেতুটি আসছে না মানুষের কোন কাজে। কেন এবং কার স্বার্থে এ সেতু। এ নিয়ে জনমনে নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে।
জানাগেছে, বিগত ২০১৫/১৬ অর্থ বছরে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের অধীনে উপজেলার চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়নের চিলাউড়া (সমধল) গ্রামের হাজী ছায়েদ মিয়ার বাড়ির খালের উপরে ২৬ ফুট দৈর্ঘ্যরে এ সেতু নির্মাণ করা হয়। ২০১৭ সালে সাবেক অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ও বর্তমান পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এ সেতুটি উদ্বোধন করেন। এরপর থেকে সেতুটি রাস্তা বিহীন অযত্ন-অবহেলায় পড়ে আছে বলে সরজমিনে স্থানীয়রা জানান।
চিলাউড়া বাজার থেকে একটি রাস্তা সমধল গ্রাম পর্যন্ত গেলেও এ সেতুর পূর্ব পাশে গিয়ে শেষ হয়েছে। তবে সেতুর পশ্চিম পাশে কোন রাস্তা নেই। আছে শুধু নলুয়ার হাওর। হেমন্ত মৌসুমে থাকে ধুধু বালুচর। আর বর্ষায় থাকে অতই পানি। হেমন্ত মৌসুমে মানুষ হাওরের আঁকাবাকা বালুচর দিয়ে চলাচল করলেও বর্ষায় একমাত্র ভরসা নৌকা। তাই রাস্তা বিহীন সেতু নির্মাণ নিয়ে জনমনে নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে।
এ ব্যাপারে ২৩ ফেব্রুয়ারি রোববার জানতে চাইলে জগন্নাথপুর উপজেলা ত্রান ও দুর্যোগ ব্যবস্থনা অধিদপ্তরে উপ-সহকারি প্রকল্প বাস্তবায়ন প্রকৌশলী সাইফুদ্দিন খান বলেন, এ সেতুটি নির্মাণ হয়েছে হাওর থেকে মানুষ যাতে সহজে চলাচল করতে পারেন। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন সেতুর এপ্রোচের মাটি সরে যাওয়ায় এমন অবস্থা হতে পারে। তবে দ্রুত এপ্রোচে মাটি ভরাটের ব্যবস্থা করা হবে।