চরফ্যাশনে ১৩ বছরের শিশুকে বলাৎকারের অভিযোগ

প্রকাশিত

চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি-

ভোলার চরফ্যাশন উপজেলায় ভাড়ায় চালিত এক হোন্ডার ড্রাইভারের বিরুদ্ধে ১৩ বছরের এক শিশুকে বলাৎকার করার অভিযোগ উঠেছে। বর্তমানে শিশুটি ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এই ঘটনায় শিশুটির পরিবারের পক্ষ থেকে চরফ্যাশন থানায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে শিশুর অভিভাবক বলেন, সোমবার রাতে আসলামপুর ভূইয়ার হাট বাজারে একটি দোকানে কাজ শেষে শিশুটি বাড়ি ফিরার পথে ওই এলাকায় ভাড়ায় চালিত হোল্ডা ড্রাইভার মনির হোসেন (২৫) পথিমধ্যে শিশুটিকে তার বাড়িতে নামিয়ে দেয়ার কথা বলে হোন্ডায় তুলে নেয়। আসলামপুর এলাকায় পথিমধ্যে বাগানের নির্জন স্থানে হোন্ডা ধামিয়ে শিশুটিকে মুখ চেপে ড্রাইভার জোরপূবর্ক বলাৎকার করে।

এসময় শিশুটি ডাক চিৎকার করলে মুখ চেপে ধরে। এরপর তাকে প্রাণ নাশের হুমকি দেয়। এরপর শিশুটি তার বাড়িতে গিয়ে অভিভাবককে ঘটনাটি জানায়। শিশুটি ওই ড্রাইভারকে আগে থেকে চিনে।

শিশুর পায়ুপথে রক্তক্ষরণ হলে মঙ্গলবার বেলা ১১টায়  চরফ্যাশন হাসপাতালে ডাক্তার দেখানোর পর তার অবস্হা গুরুত্বর হওয়ায় ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে তার অভিভাবক।

এ ব্যাপারে শিশুর অভিভাবক বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, চিকিৎসার পর থানায় অভিযোগ করবেন বলে তার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। হাসপাতালে ভর্তির পর এই ঘটনার শিশু বলৎকারের মূলহোতা হোন্ডার ড্রাইভার মনির পালাতক রয়েছে।

চরফ্যাশন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শামসুল আরেফীন জানায়, এই ঘটনায় ভিক্টিমের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেলেই আমরা দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নিব।